মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সরকার সাধারণ মানুষের ভাগ্যন্নোয়নে বদ্ধপরিকর। এজন্য সাধারণ মানুষের চাহিদার সাথে সংগতি রেখে সরকার বিভিন্ন সেবামূলক আধুনিক ও জনবান্ধব প্রকল্প গ্রহণ করছে। এসব প্রকল্পের সেবা ও কাংখিত সুফল জনগণের দ্বোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পরিবার পরিকল্পনা কর্মীদের পেশাদারিত্বের সাথে নিরলসভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। তাহলেই উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত বিশ্বের তালিকায় প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের নাম অন্তর্ভুক্ত হতে সহায়ক হবে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের শহীদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে কক্সবাজার জেলা পরিবার পরিকল্পনা কমিটির জুলাই-২০১৯ মাসের সভায় সভাপতির বক্তব্যে কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাঃ শাজাহান আলি একথা বলেন। সভায় কক্সবাজার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ পরিচালক ডা: পিন্টু কান্তি ভট্টাচার্য্য, ডিস্ট্রিক্ট কনসালটেন্ট (এফপিসিএস-কিউআইটি) ডা: মোহাম্মদ রকিব উল্লাহ্ সহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় উপ পরিচালক ডা. পিন্টু কান্তি ভট্টাচার্য জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সার্বিক অগ্রগতি উপস্থাপন করেন। সভাপতি’র বক্তব্যে জেলা প্রশাসনের এডিসি (সার্বিক) এর অতিরিক্ত দায়িত্বপালনরত মোহাঃ শাজাহান আলি সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে সর্বস্থরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিকতার সহিত কাজ করার আহ্বান জানান এবং স্থানীয় জনগোষ্টীর সেবা বৃদ্ধির জন্য সকল বেসরকারি সংস্থা গুলোকে নির্দেশ প্রদান করেন। সভাপতি ডিসি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোহাঃ শাজাহান আলি কর্মী শুন্য এইচ এন্ড এফ ডাব্লিউ সি সমূহে কর্মী পদায়নের জন্য পরামর্শ দেন। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসে বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত প্রতিষ্ঠান ও কর্মীগণকে উপপরিচালক পিন্টু কান্তি ভট্টাচার্য সভার পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •