জবানবন্দিতে পুলিশের শেখানো কথা বলেছি, বাবাকে মিন্নি

প্রথমআলো:   রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ড নিয়ে পুলিশ যা বলতে বলেছে, আদালতে তা–ই বলেছেন আয়শা সিদ্দিকা। না বললে আরও ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হবে বলে হুমকি দেন পুলিশ কর্মকর্তারা। গতকাল শনিবার আয়শার বাবা মোজাম্মেল হোসেন বরগুনা জেলা কারাগারের ফটকে মেয়ের সঙ্গে দেখা করে এসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

মোজাম্মেল আরও বলেন, ‘স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে কী বলেছে, তা মেয়ের কাছে জানতে চেয়েছি। জবাবে সে বলেছে, পুলিশ যেভাবে বলতে বলেছে, জবানবন্দিতে সেভাবেই বলেছি।’

এদিকে রিফাত হত্যার অন্যতম প্রধান আসামি রিফাত ফরাজী গতকাল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। দুই দফা রিমান্ড শেষে বরগুনা বিচারিক হাকিমের আদালতে তিনি এই জবানবন্দি দেন। পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাব্বির আহমেদ ওরফে নয়ন বন্ডের নিহত হওয়ার পর রিফাতই এ মামলার প্রধান আসামি। এ নিয়ে ১৫ আসামির ১৪ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেওয়া হলো।

গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাত শরীফ নামের এক যুবককে। ওই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, সাব্বির আহমেদ ওরফে নয়ন বন্ড ও রিফাত ফরাজী তাঁকে রামদা দিয়ে কোপাচ্ছেন। ঘটনার দিন থেকেই নিখোঁজ হন তাঁরা। এর ছয় দিন পর ২ জুলাই নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। ওই দিন রাতেই রিফাত ফরাজীকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ।

গ্রেপ্তার হওয়া রিফাত ফরাজী বরগুনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেনের ভায়রার ছেলে। তাঁর ছোট ভাই রিশান ফরাজীও এই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে রিমান্ডে আছেন। গতকাল বেলা সাড়ে তিনটার দিকে রিফাত ফরাজীকে বরগুনার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. সিরাজুল ইসলাম গাজীর কক্ষে নেওয়া হয়। জবানবন্দি দেওয়া শেষে পৌনে আটটায় তাঁকে জেলহাজতে নিয়ে যাওয়া হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমাযুন কবির সাংবাদিকদের বলেন, রিফাত হত্যার ঘটনায় নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে রিফাত ফরাজী জবানবন্দি দিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

শাহ সুফি নুরুল আমিন (রহঃ) চিশতিয়া হেফজখানা ও এতিমখানা পরিচালনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

ঈদগাঁও ভাদীতলা-শিয়াপাড়া যাতায়াত সড়কের মরণ দশা: জনদূর্ভোগ চরমে

‘শেখ হাসিনা মানবসেবা ও মানবিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় নিরলস প্রয়াস চালাচ্ছেন’

এডঃ অনিল বড়ুয়ার মাতার মৃত্যুতে জেলা আইনজীবী সমিতির শোক প্রকাশ

মগনামায় এক কিলোমিটার সড়ক সংস্কারে দুঃখ ঘুচলো হাজার শিক্ষার্থীর

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ৭

লেখালেখিতে আগ্রহী ১০৩ তরুণ-তরুণী

পর্যটন ও শুটিং স্পট বরিশালের ৩০ গোডাউন

প্রেমের টানে বাংলাদেশে ঘর বাঁধলেন ইন্দোনেশিয়ান তরুণী

কমবার সম্পাদক উত্তম পালের মা লক্ষ্মী রাণী পালের পরলোক গমন, শোক

কমতে শুরু করেছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা

প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ সৌদি আরব, অনাহারের হুমকিতে লাখ লাখ ইয়েমেনি

উন্নয়ন ও মুনাফার বলি ‘পৃথিবীর ফুসফুস’ অ্যামাজন

গণহত্যার স্পষ্ট আলামত, মিয়ানমারকে বিচারের মুখোমুখি করতে তৎপর জাতিসংঘ

কাশ্মিরে একদিকে বিক্ষোভের ঘোষণা, অন্যদিকে কারফিউ জারি

রোহিঙ্গা সমস্যায় মিয়ানমারের দায়বদ্ধতা নিশ্চিতে তিন মেকানিজম

জেলায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপন

চকরিয়ায় চারদিনব্যাপী জন্মাষ্টমীর অনুষ্ঠান শুরু

বাঘাইছড়িতে সেনা টহলগাড়ী লক্ষ্য করে গুলি : পাল্টা গুলিতে সন্ত্রাসী নিহত , ২ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের আশ্বাসে ৩ঘন্টা পর অবরোধ প্রত্যাহার