প্রেমের টানে লক্ষ্মীপুরে আমেরিকান নারী

ডেস্ক নিউজ:

প্রেমের কোন দেশ-কাল-পাত্র নেই। তাইতো দেশ আর সংসারের সকল প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে নিজ দেশ ছাড়লেন মার্কিন নারী সারলেট। বিয়ে করলেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুর এলাকার সফিক উল্যাহর ছেলে সোহেল হোসেনকে।

জানা যায়, ২০১৩ সালের ৪ঠা নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে তাদের পরিচয় হয়। এরপর বন্ধুত্ব, অতঃপর প্রেম। ২০১৬ সালের জুলাই মাসে সারলেট বাংলাদেশে আসেন। ওই মাসের ১৭ তারিখ বিয়ে করেন প্রেমিক সোহেলকে। এরপর ফিরে যান নিজ দেশে।

দীর্ঘসময় পর উভয়ের পরিবার মেনে নেওয়ায় গত শুক্রবার আবার বাংলাদেশে আসেন সারলেট। তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে গতকাল বরণ করে নেওয়া হয়। সোহেলের নিজ বাড়িতেই আপ্যয়ন করা হয়।

নব দম্পত্তির নাম এলাকার সবার মুখে মুখে মুহুর্তেই ছড়িয়ে পড়ে। তাদের দেখতে বাড়িতে ভিড় করছেন মানুষজন। সারলেটের বাড়ি আমেরিকার নিউ জার্সিতে।

বাংলাদেশের গ্রামীণ বিয়ের পরিবেশসহ অন্যান্য বিষয়ে উচ্ছসিত এই নারী বলেন, আমি খুবই খুশি। আশা করি অনেক সুখী হব।

আমেরিকান বউ পেয়ে খুশি সোহেলের মা রহিমা বেগম। তিনি বলেন, বউমা বাংলায় কথা বলতে পারে না, তবে আস্তে আস্তে কথা বলা শিখে যাবে।

সর্বশেষ সংবাদ

খরুলিয়ায় বিকাশের দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

‘মেয়র মুজিবকে বিতর্কিত করতেই উদ্দেশ্যমূলক সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে’

করোনাভাইরাস : প্রতিষেধক আবিষ্কারে একধাপ এগুলো বিজ্ঞানীরা

ছেলেদের ৭ স্বভাব, যা মেয়েরা ভীষণ পছন্দ করে

করোনাভাইরাসে এইডসের ওষুধ ব্যবহার করছে চীন

দেশের উন্নয়নের পেছনে কোনো ম্যাজিক নেই : প্রধানমন্ত্রী

২৯ ফেব্রুয়ারী জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

শিশুদের হাতে নিরাপদ ইন্টারনেট তুলে দেবে ‘প্যারেন্টাল কন্ট্রোল গাইডেন্স’?

চট্টগ্রামে নিজ বাসা থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

রোহিঙ্গা শিশুদের পড়াশোনা করাবে সরকার

ট্রাম্পের বিতর্কিত ‘মধ্যপ্রাচ্য শান্তি’ পরিকল্পনা প্রকাশ

অ্যাপলেও করোনার থাবা

ইমরান খানের হাসিতে ফেঁসেছেন পাক নারী প্রতিমন্ত্রী

করোনাভাইরাসে চীনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩২

দ্বীপে বসেই দেশব্যাপী ‘বিষমুক্ত শুটকি’ ব্যবসা

আজাহারী জামায়াতের প্রোডাক্ট, কৌশলে জামায়াতের প্রচার চালাচ্ছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ধর্মান্তরিত পরিবারকে ভারতে ফেরত পাঠানোর নেপথ্যে

কুতুবদিয়া ইউএনও’র ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

সৈকত কিন্ডার গার্টেনে নিয়োগ

মালেক শাহর ফাতেহা উপলক্ষে প্রতিযোগিতা, মক্কা ও মদিনা জেয়ারতের সুযোগ