অনলাইন ডেস্ক : একের পর এক ৩৫ গরুর মৃত্যু ৷ এতেই মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভের মুখে পড়ে বরখাস্ত অযোধ্যার বিডিও সহ ৮ সরকারি কর্মকর্তা ৷ ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজে ৷ সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে গরুদের অবহেলা করার অভিযোগ, ‘গোবধ নিবারণ অধিনিয়ম’ অ্যাক্টে কড়া পদক্ষেপ নিলেন যোগী আদিত্যনাথ ৷ মুখ্যমন্ত্রীর কড়া হুঁশিয়ারি, ভবিষ্যতেও এরকম গাফিলতি বরদাস্ত করা হবে না ৷

উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যা ও মীরজাপুরে গত কয়েকদিনে প্রয়াগরাজ শেল্টার হোমে গত ১২ জুলাই একের পর এক ৩৫ গরুর মৃত্যু হয় ৷ ঘটনা তৎক্ষণাৎ কড়া পদক্ষেপ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নির্দেশে সাসপেন্ড ব্লক ডেভেলপমেন্ট অফিসার, গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসার, ডেপুটি চিফ ভেটনারি অফিসার এবং অন্য দুই কর্মকর্তা৷

সাসপেনশন অর্ডার শোনানোর আগে এক ভিডিও কনফারেন্সে গরুদের দেখভালে গাফিলতির অভিযোগ তুলে এই অফিসারদের তিরস্কার করেন যোগী আদিত্যনাথ ৷ একইসঙ্গে দেন হুঁশিয়ারি দেন এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয় ৷

এছাড়াও মির্জাপুর জেলার মুখ্য পশু চিকিৎসক ডাঃ একে সিং, নগর পালিকা এক্সজিকিউটিভ অফিসার মুকেশ কুমার এবং মিউনিসিপ্যালিটি সিটি ইঞ্জিনিয়ার রামজি উপাধ্যায়কেও বরখাস্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ ৷ গরু মৃত্যুর ঘটনায় পশুদের শেল্টার হোমগুলোর ঠিক করে দেখভাল না করার অভিযোগে শোকজ করা হয়েছে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সহ আরও তিন আধিকারিকেও ৷

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •