বিদেশ ডেস্ক:

ফিলিস্তিনে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনীর ধরপাকড় ও তাণ্ডব অব্যাহত রয়েছে। শুধু ২০১৯ সালের প্রথম ছয় মাসেই প্রায় দুই হাজার ৮০০ ফিলিস্তিনিকে গ্রেফতার করেছে দখলদার বাহিনী। পশ্চিম তীর ও গাজা উপত্যকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ফিলিস্তিনের বেসরকারি সংস্থাগুলোর বরাত দিয়ে সোমবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি।

কমিশন অব ডিটেইনিজ অ্যান্ড এক্স ডিটেইনিজ, দ্য প্যালেস্টাইনিয়ান প্রিজনার সোসাইটি এবং প্রিজনার সাপোর্ট অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস অ্যাসোসিয়েশনের এক যৌথ প্রতিবেদনে গ্রেফতারের এ সংখ্যা তুলে ধরা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৪৪৬ অপ্রাপ্তবয়স্ক ও ৭৬ নারীও রয়েছে।

২০১৯ সালের গোড়ার দিকেই ফিলিস্তিনি বন্দিদের অবস্থা আরও খারাপ করার ঘোষণা দেয় ইসরায়েল। পরিকল্পনা অনুযায়ী বন্দিদের পানি সরবরাহ নির্দিষ্ট করা ছাড়াও পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতের পরিমাণ কমিয়ে দেওয়ার দেওয়ার ঘোষণা দেন ইসরায়েলের জননিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী গিলাড এরদান। তিনি জানান, মুক্তিকামী ফিলিস্তিনিদের প্রতিরোধ আন্দোলনের সংগঠন হামাস সংশ্লিষ্ট বন্দিদের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ এরইমধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ফিলিস্তিনিদের নিজেদের ভূমি থেকে উচ্ছেদ করে ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় জায়নবাদী রাষ্ট্র ইসরায়েল। ভূমির অধিকার রক্ষায় প্রতিরোধ গড়ে তোলা মুক্তিকামী ফিলিস্তিনিদের সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে হত্যাসহ নানান ধারার নিপীড়ন চালানোর অভিযোগ রয়েছে দেশটির বিরুদ্ধে। বন্দি অবস্থায় নির্যাতন ও সহিংসতার শিকার হওয়ার কথা বলেছেন বহু ফিলিস্তিনি। কারাগারের দুর্বিষহ অবস্থার বিরুদ্ধে গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি আমরণ অনশনের ঘটনাও ঘটেছে। তা সত্ত্বেও কারাগারে থাকার শর্ত কঠোর করতে গত বছর একটি কমিটি গঠন করে ইসরায়েল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •