নীতিশ বড়ুয়া, রামু :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রামু উপজেলায় উন্নয়ন নিয়ে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন- পরিকল্পিত উন্নয়নের মাধ্যমে কক্সবাজার ও রামুকে সাঁজিয়ে তোলা হবে। এজন্য মহা-পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে, যাহা একে একে বাস্তবায়ন হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ নজর আছে বলেই আজ কক্সবাজারে উন্নয়নের মহাযজ্ঞ চলছে। তিনি সদর ও রামু উপজেলায় উন্নয়নের বিভিন্ন চিত্র তোলে ধরে বলেন, অবকাটামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষার উন্নয়নেও শেখ হাসিনার সরকার ব্যাপক উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি এলাকার যুব সমাজকে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করতে একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার ঘোষনা দেন সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি।

এমপি কমল বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড রিয়াজ উল আলমকে নৌকা প্রতীক দিয়ে ছিলেন। কিন্তু সুবিধাবাদি কিছু লোক নৌকার বিরোধিতা করায় সানান্য ভোটে নৌকা পরাজিত হয়। ওই নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করতে যারা কাজ করে ছিলেন তারা সাময়িক কষ্ট পেলেও নৌকার বিরোধীতাকারিরা আজ সমাজে বেইমান হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। কোন বেইমানকে আর ছাড় দেয়া হবেনা উল্লেখ করে এমপি কমল বলেন, আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে যারা বিগত উপজেলা নির্বাচনে নৌকার বিপক্ষে প্রার্থী হয়েছিলো বা নির্বাচনে নৌকার বিরোধীতা করেছিলো তাদেরকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। তিনি বলেন, অতীতে আমাদেরও কিছু কিছু ভুল থাকতে পারে, সে ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আগামীতে সর্বক্ষেত্রে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে সকল নেতা-কর্মীকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি উপস্থিত নেতা কর্মীদের নিজ নিজ এলাকায় সমস্যা চিহ্নিত করে তালিকা প্রনয়ন করতে বলেন, যাহা আগামীতে পর্যায়ক্রমে উন্নয়নের মাধ্যমে সমাধান করা হবে।

১৪ জুলাই, রবিবার বিকাল ৪ টায় রামু খিজারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ‘ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী মিলনায়তনে’ আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

রামু উপজেলার বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন, প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা মাষ্টার ফরিদ আহমদ। সভায় বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম, আওয়ামী লীগ নেতা, রামু উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন কোম্পানী, রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার, কাউয়ারখোপ ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক, জোয়ারিয়ানালা ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান এমএম নুরুচ ছাফা, খুনিয়াপালং ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গণি সওদাগর, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল হক কোম্পানী, চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, খুনিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল মাবুদ, ফতেখাঁরকুল ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো, দক্ষিন মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইউনুচ ভুট্টো, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল হক, মোঃ ইসহাক বাঙ্গালী, ব্রাদার্স ইউনিয়ন কক্সবাজারের সভাপতি ও রামু উপজেলা যুবলীগ নেতা নবু আলম, রামু উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়–য়া, জেলা তাঁতীলীগ নেতা আনছারুল হক ভুট্টো, রামু উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও এমপি কমলের ব্যক্তিগত সহকারী আবু বক্কর ছিদ্দিক, রামু উপজেলা তাতীঁলীগ সভাপতি নুরুল আলম জিকু, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ, জাতীয় শ্রমিকলীগ রামুর সভাপতি শফিকুল ইসলাম কাজল, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ সভাপতি মিজানুল হক রাজা, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হক বাবু, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ রামু উপজেলার সভাপতি একরামুল হাসান ইয়াছিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শুরুতে পবিত্র কোরান থেকে তেলাওয়াত করেন কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ। সভার সঞ্চালনা করেন রামু ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছসেবকলীগ সভাপতি আজিজুল হক আজিজ। মতবিনিময় সভায় রামু উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃতৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি’র নেতৃত্বে একটি বিশাল মিছিল রামুর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে বাইপাস ফুটবল চত্বরে এসে সমাপ্ত হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •