চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদী’র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা : সাঈদী বলেছেন জামিনে আছি

 

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী’র রিরুদ্ধে ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট-৩ মোঃ আসাদাজ্জামান নূর গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন। ঢাকার পল্টন মডেল থানার ২০১৪ সালের ১২(৫)/২০১৪ নম্বর মামলায় ফজলুল করিম সাঈদী’র বিরুদ্ধে এ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। ফৌজদারী কার্যবিধি’র ৭৫ ধারা মতে এ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। মামলার ধারা সমুহ হলো-পেনাল কোড: ৪২০, ৪০৬, ৪৬৫, ৪৬৭, ৪৬৮, ১৭১, ১০৯ এবং ৩৪। আগ্নেয়াস্ত্রের জাল লাইসেন্স দিয়ে পল্টন এলাকার একটি অস্ত্রের দোকান থেকে অস্ত্র কিনার সময় ঢাকার পল্টন থানা পুলিশ সেসময় ফজলুল করিম সাঈদী সহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করা করেছিল। এ মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা ইতিমধ্যে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেছেন এবং মামলাটি আমলী আদালত থেকে বিচারের জন্য বিচারিক আদালতে ট্রান্সফার করা হয়েছে। কক্সবাজারের পুলিশ সুপারের কাছে গত ১৫ জুন প্রেরিত ৯২৪ নম্বর গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় বলা হয়েছে-“ফজলুল করিম @ সাঈদী, পিতা-মৃত ইসহাক আহম্মদ, সাং-হাল কাকরা, ২ নম্বর ওয়ার্ড, চকরিয়া পৌরসভা (সাঈদীর বাড়ী), থানা-চকরিয়া, জেলা-কক্সবাজার নিবাসীর প্রতি-এতদ্ধারা আদেশ করা যাইতেছে যে, আসামিকে ধরিয়া আমার নিকটে উপস্থিত করিবেন। ইহাতে ত্রুটি নাহয়।”
এবিষয়ে চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী সিবিএন-কে বলেছেন-গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করা হয়েছিল, সেটা সঠিক। তবে তিনি ৪/৫ দিন আগে হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়েছেন। আগাম জামিনের সহিমুহুরী নকলের কপি তিনি সংগ্রহ করে কক্সবাজারের পুলিশ সুপারকে সরবরাহ করবেন বলে সিবিএন-কে জানান। তিনি আগে এ মামলায় চার্জশীট দাখিলের পূর্ব পর্যন্ত হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিনে ছিলেন। চার্জশীট হওয়ার পর আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় তিনি পূণরায় আগাম জামিন নেন। এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সুপ্রিম কোর্টের একজন সিনিয়র আইনজীবী বলেছেন-আদালতে মামলার চার্জশীট দাখিলের পর, সে মামলায় আগাম জামিন নেয়ার কোন আইন এদেশে নেই। ফজলুল করিম সাঈদী’র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার বিষয়ে কক্সবাজার জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইনের কাছে জানতে চাইলে তিনি এ ব্যাপারে কিছু জানেননা বলে সিবিএন-কে জানিয়েছেন। চকরিয়া মডেল থানার ওসি মোঃ হাবিবুর রহমানের কাছে এবিষয়ে জানতে চাইলে, তাঁর থানায় ফজলুল করিম সাঈদী’র বিরুদ্ধে কোন ওয়ারেন্ট আসেনি বলে সিবিএন-কে জানান। একই বিষয়ে ঢাকার পল্টন মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান সিবিএন-কে বলেন-এরকম ওয়ারেন্ট হলেও হতে পারে, তবে তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য সিবিএন প্রতিনিধিকে তাঁর থানায় স্বশরীরে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

এদিকে, দৈনিক কালেরকণ্ঠের কক্সবাজারস্থ স্টাফ রিপোর্টার ও সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ তাঁর ফেসবুকে এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। রোববার ১৪ জুলাই বিকেলে দেয়া তাঁর ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, “চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে রবিবার জেলা আইন শৃংখলা কমিটির মাসিক সভায় অংশ নেন।”

সর্বশেষ সংবাদ

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি এড. ফরিদের দায়িত্বপালন শুরু

অনার্স ৪র্থ বর্ষ পরীক্ষায় পাসের হার ৭৯ ভাগ

পিতার লাশ দেখে নির্বাক আঁখি ও আদিল

হুফফাজুল কুরআন ফাউন্ডেশন রামু উপজেলার পরিচিতি সভা

কক্সবাজারে মহেশখালীর খেলোয়াড়দের উপর হামলা প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি

অভিভাবক-শিক্ষকরা সচেতন হলে কোন শিক্ষার্থী বিপথগামী হবে না’

প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা গত এক সপ্তাহে অনেক গুন বেড়ে গেছে : ওবায়দুল কাদের

মহেশখালী উপজেলা বিএনপির (আংশিক) কমিটি অনুমোদন

পেকুয়া উপজেলা যুবদলের সহ সভাপতি মাহাবুবুল করিম মেম্বার বহিস্কার

মানবাধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম

সমাজ সেবক মরহুম রশীদ আহমদের ৩১ তম স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

জলবায়ু ন্যায়বিচারের জন্য সিইএইচআরডিএফ’র আহবান

হাটহাজারীতে ১৯ বখাটে আটক

লামা ও আলীকদমে সেগুন বাগানে পোকার আক্রমন উদ্বিগ্ন বাগান মালিকেরা

টেকনাফে বিজিবি আটক করলো ২ ভূয়া বিজিবি

সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের মাধ্যমে কংক্রিটের ব্লক দিয়ে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে হবে

ক্যান্সারে আক্রান্ত এন্ড্রু কিশোর

চকরিয়ায় ইয়াবাসহ যুবক আটক

খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রাঙামাটিতে বিএনপি’র মানববন্ধন

লোহাগাড়ায় চিহ্নিত ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক