প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
বড়মহেশখালী মধুয়ার ডেইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠিনের লক্ষে অভিভাবক সদস্য নির্বাচনের জন্য উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার এর পক্ষ থেকে গত ১৯/০৬/১৯ইং তফশিল ঘোষনা করা হয়৷ নিজ নিজ অভিভাবককে অবহিত করার জন্য প্রতিটি শ্রেনী কক্ষে ছাত্র ছাত্রীদের বলা হয়, তফশিল স্কুলের দেওয়ালে এবং মধুয়ারডেইল বাজারের প্রতিটি দোকানের দেয়ালে লাগিয়ে দেয়া হয়৷ তফশিলে ২০/০৬/১৯ ইং হইতে ২২/০৬/১৯ ইংরেজী অভিভাবক প্রতিনিধি পদে মনোনয়ন ফরম ক্রয় করার নির্ধারিত সময়ে ০২জন পুরুষ ও ০২জন মহিলা ফরম ক্রয় করেন ২৩/০৬/১৯ ইংরেজী মনোনয়ন ফরম জমাদানের দিন উত্ত ০৪টি ফরম জমা পড়ে ২৪/০৬/১৯ ইংরেজী মনোনয়ন ফরম বাছাই শেষে ২৫/০৬/১৯ ইংরেজী মনোনয়ন ফরম প্রত্যাহারের দিনে কেউ মনোনয় প্রত্যাহার না করায় ০৪পদের বিপরীত ঐ চারজন কে নির্বাচিত ঘোষনা করেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও রির্টানিং অফিসার৷ নির্বাচনের নির্ধারিত সময় শেষে সভাপতি ও সহ-সভাপতি নির্বাচনের লক্ষে গত ০১/০৭/১৯ ইংরেজী কমিটির সকল সদস্য যথাক্রমে অভিভাবক প্রতিনিধি আকতার কামাল, মাহবুব ছোবহান, রুমানা আক্তার, জাহানারা বেগম,বিদ্যুৎসাহী সদস্য মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন, মাসুদা বেগম,জমিদাতা সদস্য সৈয়দ হোসন,পদাধিকার বলে উক্ত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য দলিলুর রহমান,মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিনিধি মহেশখালী আইল্যান্ড হাইস্কুলের মোঃআমিন, উক্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রতিনিধি আশেক ইলাহী, পদাধিকার বলে উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রঞ্জনা পাল সহ ১১জন সদস্য নিয়ে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের সভাপতিত্বে একটি সভা অনুষ্টিত হয়৷

সভা সঞ্চালনা করেন শিক্ষক প্রতিনিধি আশেকুর রহমান, পবিত্র কোরআন তেলওয়াত শেষে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক রঞ্জনা পাল,বক্তব্য রাখেন এমইউপি দলিলুর রহমান৷ সভায় সকলের সর্ব সম্মতিক্রমে বিনা প্রতিদ্ধন্দিতায় অত্র বিদ্যালয়ের প্রতিষ্টাতা ও সাবেক প্রধান শিক্ষক, সাবেক সভাপতি ও জমিদাতা মরহুম আলহাজ্ব মাওলানা সোলতান আহমদের সুযোগ্য পুত্র মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন সভাপতি ও ০৫নং ওয়ার্ডের বারবার নির্বাচিত ইউপি সদস্য মোঃ দলিলুর রহমান সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন৷

নব নির্বাচিত সভাপতি মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন তার অবিব্যক্তি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, আমার মরহুম পিতা আলহাজ্ব মৌলানা সোলতান আহমদের হাতে গড়া এই প্রতিষ্টান, এই প্রতিষ্টানে আমার জীবনের প্রথম পাঠ শুরু৷ এই প্রতিষ্টানে আমার পিতা প্রধান শিক্ষক ছিলেন, ছিলেন সভাপতি পদে৷ সেই প্রতিষ্টানে আমি সভাপতি হতে পেরে নিজেকে খুব ধন্য মনে করছি৷ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি মহেশখালী-কুতুবদিয়ার মাননীয় সাংসদ, আমাদের গর্বের ধন আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক এমপির প্রতি, ধন্যবাদ জানাচ্ছি এলাকাবাসীর প্রতি, শিক্ষকদের প্রতি ও এসএমসি কমিটির সকল সদস্যদের প্রতি৷ আমি সবার সার্বিক সহযোগীতা ও মতামতের মাধ্যমে এই প্রতিষ্টানকে মডেল শিক্ষা প্রতিষ্টানে রূপ দিতে নিরলস কাজ করে যাব ইনশাআল্লাহ৷

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •