প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্ত ১৬ জনকে আটক করেছে। গত ৩০ জুন থেকে ০১ জুলাই পর্যন্ত অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার (পিপিএম) এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)  মোহাম্মদ খায়রুজ্জামান পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্ এ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং), মোঃ ইয়াছিন পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স) মোহাম্মদ আরিফ ইকবাল, এসআই প্রদীপ চন্দ্র দে এসআই মোঃ জহিরুল ইসলাম এসআই আরফাতুল আলম এসআই সাইফুল আলম এএসআই মহিউদ্দিন এএসআই বাবলু দে সঙ্গীয় ফোর্স এবং ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান খান সহ কক্সবাজার সদর মডেল থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ১৬ জন আসামীকে গ্রেফতার করেন কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন

১। সামসুল আলম,পিতা-আব্দুল হাই,সাং-জালালাবাদ,ঈদগাঁও,থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

২।মোঃ রাশেদুল ইসলাম,পিতা-আব্দুল আনিস,সাং-মধ্যম মাইজ পাড়া,চৌফলদন্ডী, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৩।নুরুল আজিম,পিতা-ছৈয়দুল হক,সাং-কাজির পাড়া,ভারুয়াখালী ইউপি, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৪।আবুল কালাম আজাদ,পিতা-মৃত দানু মিয়া,সাং-খুরুলিয়া দরগাহ পাড়া, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৫।মোঃ জাকির আলম @ বাক্কু,পিতা-কালু বহদ্দার,সাং-খুরুশকুল কোনার পাড়া,পালপাড়া ০৮ নং ওয়ার্ড,থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৬।মোঃ কামরুল হাসান বাবু,পিতা-মোঃ নাছির উদ্দিন,সাং-পূর্ব লারপাড়া, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৭। ওবাইদুল হক,পিতা-সৈয়দ করিম,সাং-দক্ষিন রুমালিয়াছড়া, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৮। ছানাউল্লাহ,পিতা-মৃত মোঃ তাহের,সাং-খুরুশকুল, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

৯।মংধুরি রাখাইন,পিতা-মং ন্যাচিং,সাং-মধ্যম কাউয়ার পাড়া,থানা-রামু জেলা-কক্সবাজার।

১০।আঃ রাজ্জাক,পিতা-মৃত নূর মোহাম্মদ,সাং- মধ্যম কাউয়ার পাড়া,থানা-রামু জেলা-কক্সবাজার।

১১।চাঁদ মিয়া @ চান মিয়া,পিতা-মোহাম্মদ কালু,সাং-দক্ষিন ডিককুল সোনাপাড়া, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

১২।তারিকুল ইসলাম,পিতা-আলী হোসেন,সাং-মধ্যম মোক্তারকুল, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

১৩।সাকিবুল হাসান,পিতা-নাজির আহমদ,সাং-দক্ষিন মুহুরী পাড়া, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

১৪।মোঃ সোইব হৃদয়,পিতা-মিনহাজুল আলম,সাং-ঝিলংজা, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

১৫।আবুল কালাম,পিতা-মৃত ধনু মিয়া,সাং-ঝিলংজা, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

১৬।আঃ রশিদ,পিতা-মৃত জয়নাল মাঝি,সাং-বৈদ্যঘোনা, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার (পিপিএম) তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে তাহাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এলাকার আম জনতা ও পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার নিশ্চিতের লক্ষ্যে মামলায় অভিযুক্ত ও চিহিৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •