স্পোর্টস ডেস্ক
বিশ্বকাপের শুরুটা খুব একটা ভালো করতে পারেনি পাকিস্তান। প্রথম পাঁচ ম্যাচ থেকে তারা জিততে পেরেছিল মাত্র ১টিতে। তবে সবশেষ দুই ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডকেহারিয়ে সেমির স্বপ্ন বাঁচিয়ে রেখেছে ১৯৯২ সালের চ্যাম্পিয়নরা।

তবে এখনও কোনোকিছুই নিশ্চিত নয় তাদের। বাকি থাকা দুই ম্যাচে জয়ের পাশাপাশি অপেক্ষা করতে হবে ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচগুলোর ফলাফলের জন্যও। আর নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ।

সবার আগে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ায়, আফগানিস্তানের ব্যাপারে বিশেষ কিছু ভাবছে না পাকিস্তান। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে হালকা হওয়ার সুযোগ নেই তাদের সামনে। কারণ পাকিস্তানের সমান ৭ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট রয়েছে বাংলাদেশেরও, তাদের সামনেও রয়েছে সেমিতে খেলার সুযোগ।

উপরন্তু, সাম্প্রতিক সময়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। ২০১৫ সালে বাংলাদেশে খেলতে গিয়ে হোয়াইটওয়াশ হওয়া কিংবা গতবছরের এশিয়া কাপে হেরে যাওয়ার কারণে বিশ্বকাপের ম্যাচের আগে খুব একটা স্বস্তিতে নেই পাকিস্তান।

দেশটির সাবেক কিংবদন্তি শোয়েব আখতার সরাসরি স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি ভয় পাচ্ছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটিকে। এর যথাযথ কারণও ব্যাখ্যা করেছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। নিজের ইউটিউব চ্যানেলীক বিশদ ভিডিওতে এসব কথা বলেন শোয়েব।

যেখানে পাকিস্তানকে আশা দেখিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি, এখনও সবকিছু শেষ হয়ে যায়নি পাকিস্তানের জন্য। অনেক ভারতীয় আমাকে মন্তব্য করেছেন যে পাকিস্তানের আর কোনো আশা নেই, তারা পারবে না। কিন্তু এটা ভুলে গেলে চলবে না, আপনি যতবার পাকিস্তানকে হিসেবের বাইরে ফেলে দেন, ততবারই তারা ঘুরে দাঁড়ায়। আর এভাবে যখন ঘুরে দাঁড়ায় তারা জিততে থাকে। যা তাদের কোয়ালিফাই করতে সাহায্য করে।’

একইসঙ্গে যোগ করেন, ‘তবে এখনই পাকিস্তানকে উত্তেজিত হওয়া যাবে না। তাদের এখনও বড় একটি ম্যাচ বাকি আছে। সেটা হচ্ছে বাংলাদেশের বিপক্ষে। এটা পাকিস্তানের জন্য সম্মান রক্ষার ম্যাচ হতে পারে, আবার সম্মান হারানোর ম্যাচও হতে পারে। আমি সত্যি এ ম্যাচটিকে ভয় পাচ্ছি। কারণ বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ে খুব ভালো দল। রান তাড়ায় দুর্দান্ত এবং এখানে তারা জিততেই এসেছে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •