কামাল হোসেন, রামু :
কক্সবাজার রামুতে বেসরকারি উন্নয়ন মুলক সংস্থা ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ পরিচালিত স্কুলে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের ডাকভাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত এই প্রীতি ফুটবল ম্যাচে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ এর প্রজেক্ট কো অডিনেটর জুয়েল তালুকদার।

উক্ত প্রীতি ম্যাচে ডাকভাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ৩-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মৈষকুম ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী প্রাথমিক বিদ্যালয়।
বিজয়িদের মাঝে পুরষ্কার বিতরন কালে প্রধান অতিথি জুয়েল তালুকদার তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন,আমাদের শিক্ষার্থীদের মাঝে রয়েছে অনেক বিরল প্রতিভা।এরা যদি সরকারী বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনের সুযোগ পেত তাহলে তাদের সুপ্ত প্রতিভা আরো বিকশিত হতো।আমি বিষয়টি সংবাদ কর্মীদের মাধ্যমে সরকারের উচ্চ মহলের সুদৃষ্টি কামনা করছি।তার প্রস্তাবটি অন্যান্য বক্তারাও সমর্থন করেন।জুয়েল তালুকদারের প্রস্তাব নিয়ে রামু উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গৌর চন্দ্র দে’র কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমরা সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করি।আমাদের নীতিমালার বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই।তবে বেসরকারী স্কুলের শিক্ষার্থীরাও আমাদের সন্তান।ওরা আমাদের প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনের সুযোগের প্রস্তাব অত্যান্ত যৌক্তিক ও প্রাসংঙ্গিক।আমিও মনে করি ওরা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করলে ভালোই হয়।বিষয়টি আমি সরকারের উচ্চ মহলে আলোচনা করবো।

মৈষকুম ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এসএমসি কমিটির সহ সভাপতি ও সাবেক মেম্বার আব্দু শুক্কুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত ফুটবল ম্যাচে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ এর প্রশাসনিক কর্মকর্তা রোকনোজ্জমান খাঁন,উপস্হিত ছিলেন ডাকভাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সলিম উল্লাহ,মৈষকুম ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম,ডাকভাঙ্গা স্কুলের সহকারী শিক্ষক,মর্জিয়া বেগম, ছালেহা আক্তার, সিরাজুল ইসলাম,আরেফা আক্তার, আলমগির আলম,ও জান্নাতুল বকেয়া,মৈষকুম স্কুলের সহকারী শিক্ষক জুরমী বডুয়া,উম্মেসালমা ডেজি ,শিউলি রাণী দে,রাবিয়া বেগম আব্দুল হামিদ,উম্মে সালমা সহ দুই স্কুলের এসএমসি সদস্য,ছাত্র ছাত্রী ও তাদের অভিভাবক বৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •