মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার পুলিশ লাইনে শুরু হয়েছে প্রতিজন শুধুমাত্র ১০৩ টাকা ব্যয় করে ৩৮৬ জন ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগ প্রক্রিয়া। বুধবার ২৬ জুন সকাল ৮ থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু হয়। বুধবার ২৫ জুন ৩৮৬ কনস্টেবল পদের বিপরীতে দেড় সহস্রাধিক আগ্রহী প্রার্থী স্বাস্থ্য ও শরীরের মাপ পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৭৫৩ জন প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়েছেন বলে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। টিআরসি নিয়োগ কমিটির চেয়ারম্যান এসপি এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম বলেন-বুধবারের শারীরিক মাপ ও স্বাস্থ্য পরীক্ষায় পুলিশ সদর দপ্তরের একজন এসপি, একজন এডিশনাল এসপি, ভিন্ন জেলার দু’জন এডিশনাল এসপি, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ মহিউদ্দিন আলমগীর সহ দু’জন চিকিৎসক, কক্সবাজার সদরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজোয়ান আহমেদ, চকরিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মতিউল হক, মহেশখালী সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার সহ জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুপার (সদর) রেজোয়ান আহমেদ সিবিএন-কে জানান, টিআরসি নিয়োগের জন্য মাইকিং, লিফলেট বিতরণ, গণমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, পোস্টারিং, সভা সমিতিতে প্রচার সহ বিভিন্নভাবে যে ব্যাপক প্রচার করা হয়েছে-তাতেই এ ধরনের বেশ সাড়া পাওয়া গেছে। অথচ এমন সময়ও গেছে, কক্সবাজার জেলার নির্ধারিত কোটা পূরণ হয়নি। এডিশনাল এসপি রেজোয়ান আহমেদ বলেন-বৃহস্পতিবার ২৭ জুন বিকেল ৩ টায় শহরের বিমানবন্দর সড়কস্থ কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজ ও সৈকত বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বুধবার ২৫ জুন স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৭৫৩ জন প্রার্থীর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তিনি আরো বলেন-আগ্রহী প্রচুর প্রার্থী থাকায় প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে অপেক্ষাকৃত যোগ্য ও মেধাবী প্রার্থীদের নিয়োগ নিয়োগ দেয়া সম্ভব হবে। এতে পুলিশ বাহিনী যোগ্য ও মেধাবীদের নিয়ে আরো সমৃদ্ধ হবে।এদিকে, আগামী ২ জুলাই মঙ্গলবার পর্যন্ত ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগ পরীক্ষার প্রার্থীদের প্রতিটি ধাপে প্রতারক ও দালাল চক্রের কবল থেকে সাবধান থাকতে বলা হয়েছে। কোন প্রার্থী টিআরসি নিয়োগ পরীক্ষার যেকোন ধাপে পাশ করিয়ে দেওয়ার অজুহাত দেখিয়ে অবৈধ আর্থিক লেনদেন ও নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হলে, প্রমাণ সাপেক্ষে সেটা প্রার্থীর অযোগ্যতা বলে বিবেচনা করা হবে।
এবিষয়ে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম আবারো দৃঢ়তার সাথে সিবিএন-কে আবারো বলেছেন, সম্পূর্ণ যোগ্যতা, মেধা, স্বচ্ছতা, নিরপেক্ষতা ও নিয়োগ নীতিমালা অনুসরণ করেই টিআরসি নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতারক ও দালাল চক্রের পাঁতা কোন ফাঁদ ও প্রলোভনে পা না দেওয়ার জন্য নিয়োগ পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের প্রতি তিনি আহবান জানান। পুলিশ লাইনে ১ জুলাই সোমবার সকাল ১০ টায় লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে এবং একইস্থানে ২ জুলাই মঙ্গলবার বিকেল ৫ টায় মৌখিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। টিআরসি নিয়োগে মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে কেউ প্রতারিত করতে চাইলে কক্সবাজার পুলিশ সুপারের ০১৭১৩৩৭৩৬৫৭ নম্বর, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) এর ০১৭১৩৩৬৩৭৫৯ নম্বর এবং সহকারী পুলিশ সুপার (ডিএসবি) এর ০১৭৬৯৬৯০৮৮৩ নম্বর মোবাইল ফোনে প্রার্থীদের যোগাযোগ করতে এসপি এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম অনুরোধ করেছেন। কক্সবাজার জেলা পুলিশের এতকিছু সতর্কতার পরও যদি কেউ অনৈতিক লেনদেন, অসাধুপায় অবলম্বন ও অবৈধ পন্থায় নিয়োগ পাওয়ার তথ্য পেলে, সে নিয়োগ তাৎক্ষনিক বাতিল করা হবে বলে সর্তকতায় উল্লেখ করা হয়েছে। কোন প্রতারক, দালাল বা টিআরসি নিয়োগ সংক্রান্ত কোন মিথ্যা রটনাকারীর তথ্য পেলে তাদেরকে কঠোর আইনের আওতায় আনা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •