সেলিম উদ্দীন, ঈদগাঁওঃ

বাজার থেকে সদাইপাতি করে কন্যাকে সাথে নিয়ে ঘরে ফেরা হল না পিতার। ঘর থেকে মাত্র ২ শ গজ দুরত্বে সড়ক দুর্ঘটনায় না ফেরার দেশে চলে গেলেন মাওলানা আবু আজম নামের এক মাদরাসা শিক্ষকের। তিনি চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের নয়া পাড়ার মরহুম মোস্তাক আহমদের পুত্র।
মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি সদরের ইসলামাবাদ খোদাইবাড়ি এ জি লুৎফুল কবির আর্দশ বালিকা দাখিল মাদরাসার শিক্ষক ছিলেন।
সোমবার (২৪ জুন) উপজেলার খুটাখালী নয়াপাড়ার উত্তরে মহাসড়কে ছারপোকা-অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনি প্রাণ হারান।
এসময় তার কন্যা ও রিক্সা চালক গুরুত্বর আহত হয়েছে। তাদেরকে মালুমঘাট খ্রিষ্টান হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তৎমধ্যে নিহতের কন্যার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছে চিকিৎসক।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার গিয়াস উদ্দীন বলেন, সোমবার রাত পৌনে ৯ টার সময় মাওলানা আবু আজম খুটাখালী বাজার থেকে কন্যাসহ অটোরিক্সা যোগে বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় তাদের রিক্সাটি নয়াপাড়ার কাছাকাছি মহাসড়কের ব্রীজ এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী ছারপোকা স্বজরো ধাক্কা দিলে রিক্সাটি মহাসড়ক থেকে ছিটকে গিয়ে দুমড়ে মুছড়ে খাদে গিয়ে পড়ে। এসময় স্থানীয়ররা তাদেরকে উদ্ধার করে মালুমঘাট খ্রিষ্টান হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত কন্যা ও রিক্সা চালককে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
খবর পেয়ে মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গাড়িটি জদ্ধ করলেও চালক পলাতক রয়েছে।
মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশের আইসি আলমগীর হোসেন বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে ছারপোকা গাড়িটি জদ্ধ করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহতের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •