ইমাম খাইর, সিবিএন:
রামু উপজেলা সদরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা চৌমুহনিতে সড়কের দুই পাশ ঘিরে গড়ে উঠে অসংখ্য ছোটবড় স্থাপনা-ঝুপড়িঘর। রাস্তার উপর বসানো হয় চা-পানের দোকান। কেউবা গড়ে তুলে নিজস্ব অফিস ও আড্ডাস্থল। ফুটপাত দখল করে দোকানঘর ভাড়া দেয় স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী লোক। যে কারণে প্রায়শঃ ছোটখাটো দুর্ঘটনার খবর আসে।
অবশেষে সোমবার (২৪ জুন) সকাল থেকে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান শুরু করেছে উপজেলা প্রশাসন।
সবেমাত্র যোগদান করা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণয় চাকমার নেতৃত্বে পলিচালিত অভিযানে চৌমুহনি ও আশপাশ থেকে প্রায় অর্ধশত ঝুপড়ি, স্থাপনা গুড়িয়ে দেয়া হয়। অভিযানে কেউ আটক না হলেও সতর্ক করা হয় অবৈধ স্থাপনাকারীদের। এ সময় স্থানীয় প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
উচ্ছেদ অভিযান প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণয় চাকমা বলেন, রামুর মূল শহরে ঢুকার পথ থেকে শুরু করে বাজারের অনেক পয়েন্টে ঝুপড়ি দোকান বসানো হয়েছে। যে কারণে সৌন্দর্যহানির পাশাপাশি প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। ফুটপাথ দখল এসব দোকানপাটের কারণে পথচলায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। তাই দুর্ভোগের বিষয়টি চিন্তা করে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছে। রামুকে পরিচ্ছন্ন করতে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান ইউএনও প্রণয় চাকমা। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে স্থানীয়রা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •