আল জাবের, বদরখালী:

কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার বদরখালী ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা সাগরের হাতে এক বৃদ্ধমহিলা লাঞ্চিত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে । ২৩ জুন রোজ রবিবার এই ঘটনা ঘটে। লাঞ্ছিত বদরখালী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড শহরিয়া পাড়া গ্রামের মৃত আবুল হাশেমের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৫০)।

তিনি অভিযোগ করেন, সেবা নিতে আসে তার মেয়ের জন্ম নিবন্ধন অনলাইল যাছাই করতে অত্র ডিজিটাল সেন্টারের পরিচালককে জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন আছে কিনা দেখতে বলেন । তখন ডিজিটাল সেন্টারের পরিচালক সাগর তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে সেবা নিতে আসা ঐ বৃদ্ধমহিলাটির মুখে জন্ম নিবন্ধনটি ছুঁড়ে মারে । মহিলাটি নিরুপায় হয়ে অত্র ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার নুরুল ইসলামকে জানান । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাছিনা বিশ্বরে দরবারে বাংলাদেশকে ডিজিটাল রূপ দিতে নাগরিক সেবা জনগণের দোড়গোড়ায় পৌছে দেয়ার ঘোষনা দিয়েছেন ।

আরেক ভুক্তভোগী জানান, কক্সবাজার জেলায় জন্ম নিবন্ধন বন্ধ থাকলে ও তাকে মোঠা অংকের টাকা দিলে নাকি তার কাছে জন্ম নিবন্ধন পাওয়া যায়। একটা জন্ম নিবন্ধনের মুল্য কি ৫হাজার টাকা ! দেশের গরীব অসহায় সাধারণ মানুষ ৫ হাজার টাকা দিয়ে জন্ম নিবন্ধন নেওয়া কি সম্ভব হবে ? গরীব অসহায়রা কোথায় যাবে ।

বদরখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জসমি উদ্দিন কিশোর জানান, বর্তমান সরকারের ভাবমুর্তিক্ষুন্ন করতে সাগর প্রতিনিয়ত বদরখালী ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে সেবা দিতে আসা সাধারণ মানুষ তার হাতে লাঞ্ছিতসহ দুর্বব্যহারের শিখার হতে হচ্ছে।সারা দেশে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ডিজিটাল সেন্টারের সেবা জনগণের দোড়গোড়ায় পৌছে নিতে হবে । ইউনিয়ন পরিষদ দেশের প্রাচীনতম স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান। এটি তৃনমুল পর্যায়ে জনগণের সবচেয়ে কাছের সরকার। ইউনিয়ন পরিষদে স্থাপিত তথ্য-প্রযুক্তিভিত্তিক কেন্দ্র ‘ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার’ পরিষদকে নতুন মাত্রা প্রদান করেছে।

মধ্যে একটি তথ্য ও জ্ঞান-ভিত্তিক দেশ প্রতিষ্ঠায় যথাযথ ভূমিকা রাখতে পারে। পাশাপাশি এই সব কেন্দ্র সরকারি-বেসরকারি তথ্য ও সেবাসমূহ জনগনের কাছাকাছি নিয়ে যেতে, প্রযুক্তি বিভেদ দূর করতে ও সকল নাগরিককে তথ্য প্রবাহের আধুনিক ব্যবস্থার সাথে যুক্ত করতে সুদুর প্রসারী ভূমিকা রাখতে পারে । ‘জনগণের দোড়গোড়ায় সেবা’ (Service at Doorsteps)-এ ম্লোগানকে সামনে রেখে ইউডিসির যাত্রা শুরু হয়েছিল। ইউডিসি প্রতিষ্ঠার ফলে সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার প্রতিটি ক্ষেত্রে একটি অবাধ তথ্য প্রবাহ সৃষ্টি করা সম্ভবপর হয়েছে, যেখানে মানুষকে আর সেবার জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হচ্ছে না, বরং সেবাই পৌঁছে যাচ্ছে মানুষের দোরগোড়ায়।

এ ব্যাপারে বদরখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খাইরুল বশর থেকে জানাতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমি জানি না । তবে ডিজিটাল সেন্টারে সেবা নিতে আসা ৩নং ওয়ার্ড শহরিয়া পাড়া গ্রামের মৃত আবুল হাশেমের স্ত্রী লাঞ্চিত হওয়া ফাতেমা বেগমকে আগামীকাল ইউনিয়ন পরিষদে ডাকা হবে বলে জানান তিনি। উক্ত বিষয়ে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন । বর্তমান সরকারের ডিজিটাল সেন্টারের সেবা সমূহ জনগণের দোড়গোড়ায় সেবা পৌছে দিতে হবে। বদরখালী ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা যদি সেবা নিতে আসা সাধারণ মানুষ তার হাতে হয়রানি ও লঞ্চিত এর শিখার হয় তাকে উক্ত পদ থেকে বহিস্কার করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •