মহাসড়কের ফুটপাত যেন ইট-কংক্রিটের আড়ৎ

শাহীন মাহমুদ রাসেল

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের দু’পাশে চাকমারকুল থেকে রামু বাইপাস পর্যন্ত থাকা ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে চলছে ইট-কংক্রিটের ব্যবসা। এ কারণে স্বাচ্ছন্দে চলাচল করতে পারছেন না পথচারীরা। যান চলাচলে ঘটছে ব্যাঘাত, সারাক্ষণই লেগে থাকছে জট।

সরেজমিনে দেখা যায়, এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি চাকমারকুল থেকে শুরু করে রামু বাইপাস পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার ফুটপাত ও রাস্তা দখলে চলে গেছে। সেখানে রাখছে ইট, কনক্রিট, বালি ও রাবিশ। মহাসড়কের ২০ ফুট চওড়া ফুটপাত এত সরু হয়ে গেছে যে হেঁটে চলাও যাচ্ছে না। ফুটপাত দখল করে এসব ব্যবসায়ীরা রাখছেন স্থায়ীভাবেই। আর যাঁরা ফুটপাতে জায়গা পাচ্ছেন না, তাঁরা মালামাল রাখছেন প্রায় রাস্তার ওপরই। এমনকি রাস্তার বিভাজকের ওপরেও রাখা আছে ইট, কনক্রিট ও রাবিশের বস্তা প্রভৃতি। ফলে ঝুঁকি নিয়ে পথচারীদের চলতে হচ্ছে মূল সড়কে নেমে মাঝপথ বরাবর।

তেচ্ছিপুল এলাকার বাসিন্দা ইমাম হোসেন বলেন, এটা পর্যটক নগরী কক্সবাজারের ব্যাস্ত মহাসড়ক, এই পথেই আমাদের নিয়মিত যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু বর্তমানে ফুটপাতের পুরো অংশেই অবৈধ ব্যবসায়ীদের দখলে। হেঁটে চলাচলের আর কোনো উপায় নেই। বছর দুয়েক আগে এখানে প্রথমে দু-একজন ব্যবসায়ী ইট রেখে বিক্রি করতেন। পরে দিন দিন ইট, বালি, কনক্রিট রাখার গুদাম বানিয়ে রাখে। এখন পরিমাণ বাড়তে থাকে।

ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে গিয়ে ভিড়ের কারণে সামনে এগোতে পারছিলেন না এক পথচারী। তিনি বলেন, ফুটপাতের যেটুকু অংশ ফাঁকা আছে, সেটা তো লোকজনের চলাচলের জন্য নয়। ওই অংশটা হলো ইট, কনক্রিট ও বালি ব্যবসায়ীদের জন্য। রাস্তার ওপর ইট, কনক্রিট, সড়কে হেঁটে চলা মানুষ, ধুলো-বালি, ইটবাটার চলাচল করা ডাম্পার—সব মিলিয়ে একটা প্রচণ্ড বিশৃঙ্খল অবস্থা। একটু পর পর লেগে যায় যানজট।

চাকমারকুল এলাকার বাসিন্দা এনায়েত উল্লাহ বলেন, এটি বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের অনেক ব্যস্ত সড়ক। এখান দিয়ে কক্সবাজার, ঢাকা-চট্টগ্রামের মানুষের সার্বক্ষণিক চলাচল থাকে। তার মধ্যে এখানে একটি রেলের লেভেল ক্রসিং হচ্ছে। এমন একটি স্থানে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে ইট ও কনক্রিট ব্যবসা গড়ে ওঠায় জনসাধারণের চলাচলে সমস্যা হচ্ছে।

মহাসড়ক দখলের ব্যাপারে জানতে চাইলে রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) প্রণয় চাকমা বলেন, মহাসড়কের ফুটপাত দখলের বিষয়টি আমার চোখে পড়েছে। ব্যাস্ততার কারণে সময় দিতে পারিনি, শিগগরই মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজারের সন্তান ব্যারিস্টার নওরোজ চৌধুরী ডেপুটি এটর্নি জেনারেল হলেন

চকরিয়ায় বৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধার উপর সন্ত্রাসী হামলা

জলদাশ পাড়ায় শ্মশান নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা সমাধানে এগিয়ে গেলেন এমপি কমল

বন্যায় দূর্গত মানুষের পাশে নেই বিএনপি নেতা কর্মীরা- রেজাউল করিম

চীনের মাটিতে শিক্ষাজীবন ও নতুন অভিজ্ঞতা

খুটাখালী থেকে অপহৃত জসিম ফিরেছে, আনসার কমান্ডার গিয়াসের খোঁজ নেই

‘পর্যটন শহর কক্সবাজারকে আধুনিকীকরণ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা

চকরিয়ায় স্কুলছাত্রী ধর্ষনের ঘটনায় ৫ জনকে আসামী করে মামলা

পেকুয়ায় স্কুলছাত্র নিখোঁজ

ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করুন : জেলা আওয়ামী লীগ

মানব কল্যাণ ও সাংবাদিকতা!

পরিবারকল্যান কর্মীদের পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে : এডিএম শাজাহান আলি

কক্সবাজার জেলা ছাত্রদল এর ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি

ফাঁসিয়াখালী, বড়ঘোপ ও হ্নীলায় বৃহস্পতিবার সাধারণ ছুটি ঘোষণা

যশোরের শার্শায় প্রসূতি নারীর তিন পুত্র সন্তানের জন্ম

একাই দুই ছিনতাইকারী ধরে পুলিশে দিলেন সাংবাদিক

চকরিয়ায় অপহরণের ৭ দিন পর স্কুল ছাত্র উদ্ধার

ওলামা লীগ বিলুপ্তির পথে?

দেশ ছেড়ে কোথাও যাবেন না, জানালেন প্রিয়া সাহা