নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও আদালতের রায় বাস্তবায়ন করতে হবে। অন্যথায় কক্সবাজারের সম্পদ রক্ষায় তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলা হবে। কোন প্রভাবশালীকে ছাড় দেয়া হবে না।
সোমবার (১৯ জুন) বিকেলে সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমরা কক্সবাজারবাসী’র মতবিনিময় সভায় বক্তারা এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।
সংগঠনের অন্যতম উদ্যোক্তা জাতীয় পার্টির নেতা মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে কক্সবাজার পৌরসভার কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা বলেন, রোহিঙ্গা, মাদক, দখল -এই সমস্যায় পুরো কক্সবাজার আজ জর্জরিত। প্রশাসনের সাথে লেজুড়বৃত্তি করে নেতারাই দখলবাজিতে মেতে উঠেছে। যারা বীচ দখলে জড়িয়ে পড়েছে সেই অযোগ্য বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির হাতে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত কোনভাবেই নিরাপদ নয়। এই কমিটি বাতিল করে বিতর্কহীন ও গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে নতুন বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠন করতে হবে।
বক্তারা ক্ষোভের সাথে বলেন, যাদের নেতৃত্বে কক্সবাজার সাজানোর কথা- তারাই বিভিন্ন দখলবাজিতে জড়িয়ে পড়েছে। রোহিঙ্গা ভারে জর্জরিত হয় কক্সবাজার আগামী ১০ বছরে ‘উদ্বাস্তু জেলা’ হিসাবে পরিণত হবে।
তারা বলেন, দলমত নির্বিশেষে সবাইকে আগামীর কক্সবাজার নিয়ে ভাবতে হবে। প্রয়োজনে তীব্র আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। কক্সবাজার ১ ইঞ্চি মাটিও দখলবাজদের হাতে ছেড়ে দেয়া হবে না।
আমরা কক্সবাজারবাসীর অন্যতম উদ্যোক্তা
এইচএম নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় সভায় মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সংগঠনের সমন্বয়ক কলিম উল্লহ উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী সদস্য ও দৈনিক দৈনন্দিন পত্রিকার প্রধান সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম, কক্সবাজার জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান মুফিজ, প্রবীন সিপিবি নেতা সমীর পাল, কক্সবাজার উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জাপা নেতা রুহুল আমিন সিকদার, খেলাঘর সংগঠক ও কক্সবাজারবাসীর সমন্বয়ক জসিম উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ জাকারিয়া চৌধুরী, পৌর ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসআইএম আক্তার কামাল, আমরা কক্সবাজারবাসীর সমন্বয়ক সাবেক ছাত্রনেতা সাংবাদিক মহসিন শেখ, জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহসভাপতি ইসমাইল সাজ্জদ, জেলা সিপিবির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কমরেড অনিল দত্ত, সাংবাদিক মুহাম্মদ উর রহমান মাসুদ, ইমাম খাইর, কল্লোল দে চৌধুরী, ছাত্রনেতা জাহেদুল ইসলাম রিটন, সাংবাদিক আজিম নিহাদ প্রমুখ।
সভায় উপস্থিত ছিলেন- সাবেক ছাত্রনেতা কামাল উদ্দিন, সাংবাদিক আরফাতুল মজিদ, দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, সুকেন্দু বড়ুয়া, নাছির উদ্দিন বিপু, আজিম উদ্দিন, আমান উল্লাহ, পাবেল দাশ, আনোয়ার হাসান চৌধুরী, ফারুক আহম্মেদ, সেলিম উদ্দিন, নাজমুল হোসেন মিঠু, মমতাজ শফিনা আজিম, ফাতেমা আক্তার, ধ্রুব সেন দে, মোজাফ্ফর আহম্মদ সিকদার প্রমুখ।
কক্সবাজার নিয়ে যারা ভাবেন এমন লোকদের নিয়েই মূলতঃ সভাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সর্বসম্মতিক্রমে আগামী ২৪ জুন সকাল ১০ টায় কক্সবাজার আদালত চত্ত্বরে মানববন্ধন ও গণজমায়েতের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
এদিন কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত নিয়ে আদালতের রায় বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করবে আমরা কক্সবাজারবাসী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •