cbn  

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে তালা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী হুমায়ুন কবির সিকদার ১১১০৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম ও একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আকবর খান (প্রতীক-উড়োজাহাজ) পেয়েছেন ৯৮২৪ ভোট। নির্বাচিত হুমায়ুন কবির সিকদার কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাসিনা আক্তার বিউটি (কলস) প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর প্রাপ্ত ভোট-১৩৯২৫ টি। তাঁর একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা মেহেরুন্নেছা (প্রতীক- কলস)। তাঁর প্রাপ্ত ভোট-৬৭৬৪ টি। বিষয়টি কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার-২ ও কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার জামসেদুল ইসলাম সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। নির্বাচনে পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন সহ মোট ৪ জন প্রার্থী ছিলেন। বৃহস্পতিবার ১৩ জুন কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের দু’টি ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৭ ভোটকেন্দ্রে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কুতুবদিয়া উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৮৪৫২৪ জন।বৃহস্পতিবারের নির্বাচনে মোট ভোট কাষ্ট হয়েছে ২১৫৫৮ টি। যা মোট ভোটার সংখ্যার শতকরা ২৫’৪০ ভাগ।
চেয়ারম্যান পদে কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে তাঁর নামে গেজেট প্রকাশ করা হলেও আইনী জটিলতায় তিনি এখনো শপথ নিতে পারেননি। তাই চেয়ারম্যান পদে এখানে বৃহস্পতিবার নির্বাচন হয়নি। কুতুবদিয়া উপজেলায় মোট ইউনিয়ন ৬ টি, ভোট কেন্দ্র ৩৭ টি, মোট বুথ সংখ্যা ১৮৭ টি, তার মধ্যে স্থায়ী বুথ সংখ্যা ১৭৬ টি ও অস্থায়ী বুথ সংখ্যা ১১ টি। মোট ভোটার সংখ্যা ৮৪৫২৪ জন। যা জেলার ৮ টি উপজেলার মধ্যে সর্বনিম্ন। এরমধ্যে, পুরুষ ভোটার ৪৪০৬১ জন, মহিলা ভোটার ৪০৪৬৩ জন। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ভোট গ্রহন তদারকীরর জন্য ৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বে ছিলেন। তাঁরা হলেন-চকরিয়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) খোন্দকার মোঃ ইয়াহিয়া উদ্দিন আরাফাত, রামুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) চাই থোয়াইখলা মারমা চৌধুরী, মহেশখালীর সহকারী কমিশনার (ভূমি) অংগ্যাজাই মারমা, কুতুবদিয়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুপ্রভাত চাকমা। অন্যদিকে, কুতুবদিয়া চৌকি আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রেজাউল হক নির্বাচনে বিচারিক হাকিম হিসাবে বিচারিক দায়িত্ব পালন করছেন। এদিকে, নির্বাচনে ৩৫০ জন পুলিশ, ৪৪৪ জন আনসার ও ১৬ জন কোষ্টগার্ড বৃহস্পতিবার নির্বাচনী দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •