cbn  

সিবিএন ডেস্ক:
ফেসবুকের ‘ওয়াচ’ নামের ভিডিও সেবার ব্যবহারকারী বাড়ছে। গতকাল বুধবার ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলেছে, গত ডিসেম্বর মাস থেকে ওয়াচ ব্যবহারকারী দ্বিগুণ বেড়ে গেছে। ইউটিউবের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সম্প্রচারক ও প্রকাশকদের সঙ্গে আরও বেশি পার্টনারশিপ করার ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ফেসবুক বলছে, প্রতি মাসে ৭২ কোটি ও প্রতিদিন ১৪ কোটি মানুষ কমপক্ষে এক মিনিট করে ফেসবুক ওয়াচে সময় কাটায়।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ফেসবুক ওয়াচে ভিডিও প্রকাশকদের অর্থ উপায়ের সুবিধা দিতে অ্যাড ব্রেকস সেবা বাড়াচ্ছে তারা।

গত বছরের নভেম্বর মাসে বাংলাদেশে ‘অ্যাড ব্রেকস’ সুবিধা চালু করেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। ব্যবহারকরীরা ফেসবুকে আপলোড করা ভিডিওতে বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষাতেই এ সুবিধা পাবেন। যোগ্য প্রকাশক ও নির্মাতারা এখন অ্যাড ব্রেকস সুবিধার মাধ্যমে ফেসবুকে দেওয়া দীর্ঘ সময়ের ভিডিওগুলো থেকে আয় করতে পারবেন এবং পেজের ফলোয়ার বাড়াতে পারবেন। ফেসবুক সম্প্রতি কানাডায় এ সুবিধা চালু করেছে। এ ছাড়া পাঁচটি নতুন ভাষায় অ্যাড ব্রেকস সুবিধা চালু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে ভিডিও সেবাটি চালু করার এক বছর পরে গত বছর থেকে ওয়াচ সেবা সম্প্রসারণ শুরু করে ফেসবুক।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দ্য ভয়েস জার্মানি, নেক্সট টপ মডেলে, ক্রিকেট বিশ্বকাপের হাইলাইটসের মতো জনপ্রিয় নানা শো ওয়াচ প্ল্যাটফর্মে আনছে তারা।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রকৃত ভিডিওগুলোকে গুরুত্ব দিতে তারা বিনিয়োগ অব্যাহত রাখবে। যাঁরা ফেসবুক ভিডিও থেকে অর্থ আয় করতে চান, তাঁদের ফেসবুক পেজে কমপক্ষে তিন মিনিটের ভিডিওতে দুই মাস ধরে ৩০ হাজার এক মিনিটের ভিউ থাকতে হবে। ওই পেজে ১০ হাজারের বেশি ফেসবুক ফলোয়ার থাকতে হবে। যেসব দেশে অ্যাড ব্রেকস সুবিধা চালু আছে, সেসব দেশের ব্যবহারকারীরা এ সুবিধা পাবেন। কনটেন্ট নীতিমালা অনুযায়ী এসব ভিডিও কিছুটা স্বয়ংক্রিয় আবার কিছু পর্যালোচনাকারীরা দেখে তারপর অনুমোদন দেবে।

সিবিএন/ইমাম খাইর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •