cbn  

পেকুয়া সংবাদদাতা:
কক্সবাজারের পেকুয়ার ঐতিহ্যবাহী আলহাজ্ব কবির আহমদ চৌধুরীর বাজারের নানান সমস্যা নিরসন ও পেকুয়ার অরক্ষিত বেড়িবাঁধ দ্রুত সংস্কারের উদ্যোগ নিতে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট আবেদন করেছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও আসক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক নাছির উদ্দিন বাদশা।

সোমবার (১০ জুন ২০১৯) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুব উল করিমের হাতে তিনি এই আবেদন তুলে দেন। জনস্বার্থে দায়েরকৃত আবেদনে নাছির উদ্দিন বাদশা কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার অন্যতম বানিজ্যিক কেন্দ্র পেকুয়া আলহাজ কবির আহম্মদ চৌধুরী বাজারে নালা, গণসৌচাগার, বাজারের তোহা মার্কেটের আলাদা কাঁচা মাছ, শুটকি, তরকারী ও পান সুপারির দোকানের পৃথক শেড নির্মাণ, ডাস্টবিনসহ প্রয়োজনীয় নলকূপ ও যাত্রী চাউনিসহ নির্মাণের জন্য আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এসবের পাশাপাশি ঝুঁকিপূর্ণ পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি সংস্কার, এলোমেলো বৈদ্যুতিক তার ঝুঁকিবিহীন করণ, প্রয়োজনীয় সংখ্যক লাইটিংয়ের জন্য দাবী জানানো হয়।

এছাড়াও পেকুয়া বাজারে যানজট নিরাসনের জন্য স্থায়ী ট্রাফিক পুলিশের ব্যবস্থা, বাজার ও ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তার স্বার্থে স্থায়ী পুলিশ বক্স স্থাপন, জন প্রতিনিধি-ব্যবসায়ীদের নিয়ে প্রশাসনিক কমিউনিটি পুলিশিং গঠনসহ জোরদার, বাজারের দুই পাশের ভাসমান ব্যবসায়ীদের সরিয়ে অনত্র পুনর্বাসনের কথা উল্লেখ করা হয় ওই আবেদনে।

পেকুয়া বাজারের উন্নয়ন প্রসঙ্গে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন বাদশা জানান, প্রতি অর্থ বৎসরে পেকুয়া বাজার ইজারা দিয়ে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব আয় করলেও আশানুরুপ উন্নয়ন হয়নি। বর্তমানে পেকুয়া বাজারের অভ্যন্তরীণ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ‘‘পান বাজার সড়ক’’ এর বেহাল দশার কারণে বাজারে আগত লোকজন ও ব্যবসায়ীরা চরম দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে। তিনি দ্রুত পান বাজার সড়কটি সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোরালো দাবি জানান।

নাছির উদ্দিন বাদশা আরো জানান, পেকুয়া বাজার অতি প্রাচীন একটি বাজার। এই বাজারের রয়েছে প্রাচীন ঐতিহ্য। অথচ প্রাচীন বাজার হিসেবে বরাবরই অবহেলার ঘেরাটপে বন্ধী। অরদিকে পৃথক আবেদনে ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন বাদশা পেকুয়া উপজেলার দীর্ঘদিনের জনগণের দাবি সদর ইউনিয়নের পূর্ব মেহেরনামা ও বিলাহাচূড়া এলাকায় মাতামুহুরী নদীর করাল গ্রাস থেকে রক্ষায় স্থায়ী টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ইউএনওর মাধ্যমে জেলা প্রশাসক ও পাউবোর নিার্বহী প্রকৌশলী কাছে লিখিত আবেদন জানানো হয়েছে। প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে পাহাড়ি ঢল ও বন্যায় বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে মেহেরানামা-ছিরাদিয়াসহ আশেপাশের এলাকায় প্লাবিত হয়ে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

পেকুয়ার বঞ্চিত ও অবহেলিত জনগোষ্ঠী আশ্রয়স্থল পেকুয়া সদর ইউনিয়নের বিলাহাচূড়া গ্রামে সরকারী আবাসন প্রকল্পের সংস্কারের জন্য ইউএনওর মাধ্যমে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করেন। ১৯৯৬ সালে সেসময়ের সরকারের আমলে আশ্রয়ণ প্রকল্পটি বাস্তায়িত হলেও বর্তমানে সংস্কার বিহীন অবস্থায় একশটি পরিবার মানবেতর জীবন-যাপন করছে।

পেকুয়া উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন বাদশার জমাকৃত জনগুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি আবেদন প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুব উল করিম জানান এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •