সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্ত ১৪ জনকে আটক করেছে। গত ৯ জুন সকাল হতে ১০ জুন সকাল পর্যন্ত অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার (পিপিএম) এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্ এ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং) মোহাম্মদ ইয়াছিন, পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স) মোহাম্মদ আরিফ ইকবাল, এসআই প্রদীপ চন্দ্র দে, এসআই রাজীব চন্দ্র পোদ্দার, এসআই স্বপন কুমার ভৌমিক, এসআই কাজী আবুল বাশার, এসআই এমরান হোসেন, এএসআই কামাল-১, এএসআই লিটন মিয়া, সঙ্গীয় ফোর্স এবং ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান খান সহ কক্সবাজার সদর মডেল থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ১৪ জন আসামীকে গ্রেফতার করেন কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন

১। মোঃ কাউসার প্রকাশ মুন্না, পিতা-মৃত শফিক, সাং-এসএম পাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

২। মোঃ মোস্তাক, পিতা-মৃত গোলাম মোস্তফা, সাং-এসএমপাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

৩। মোঃ দুলাল প্রকাশ বেচু, পিতা-আইনুল করিম প্রকাশ আইনুল বেপারী, সাং-হাঙ্গর পাড়া, টেকপাড়া, জনতা সড়ক, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

৪। মোঃ ইসমাইল, পিতা-মো ঃ ইলিয়াস, সাং-দক্ষিন রুমালিয়ারছড়া, বর্তমানে কচ্ছপিয়া, কালুর দোকান, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

৫। রহিম উল্ল্যাহ, পিতা-আবদুল করিম, সাং-খুনিয়াপালং, থানা-রামু, জেলা-কক্সবাজার।

৬। রহমত উল্ল্যাহ, পিতা-মৃত বেচা আলী, সাং-মহেশখালীয়া পাড়া, ০১নং ওয়ার্ড, থানা-মহেশখালী, জেলা-কক্সবাজার।

৭। মোঃ ফিরোজ, পিতা-মৃত নজির আহমদ, সাং-পশ্চিম লারপাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

৮। আব্বাস উদ্দিন, পিতা-আলী আকবর, সাং-দক্ষিণ ডিককুল , থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

৯। মোঃ বাবুল, পিতা-জামাল আহমদ, সাং- পূর্ব ঘোনারপাড়া, ০৭নং ওয়ার্ড, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

১০। মোঃ নুরুল হক, পিতা-মৃত ইমাম শরীফ, সাং- পূর্ব ঘোনারপাড়া, ০৭নং ওয়ার্ড, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

১১। মোঃ আলাউদ্দিন, পিতা-সাহাব মিয়া, সাং-পূর্ব ঘোনারপাড়া, ০৭নং ওয়ার্ড, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

১২। আরিফ উল্ল্যাহ, পিতা-ছলিম উল্ল্যাহ, সাং-পশ্চিম পাড়া, ভারুয়াখালী, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

১৩। আলী আহমদ, পিতা-মোহাম্মদ হোসেন, সাং-ভাদী তলা, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

১৪। জালাল আহমদ, পিতা-আবদুল হাকিম, সাং-মধ্যম কলাতলী, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা ও জেলা- কক্সবাজার।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার (পিপিএম) তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে তাহাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এলাকার আম জনতা ও পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার নিশ্চিতের লক্ষ্যে মামলায় অভিযুক্ত ও চিহিৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •