গণমানুষের ম্যাগাজিন “ইত্যাদি”

– শ্রীধর দত্ত

ইত্যাদির” ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ছাড়া যেন ঈদ বৃথা। ঈদ এবং ইত্যাদি অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত। আমরা যারা সত্তর এবং আশির দশকে জন্মগ্রহণ করেছি তারা অবশ্যই দেখেছেন বাংলাদেশ টেলিভিশন ছাড়া আর কোন চ্যানেল ছিলো না। টেলিভিশনে বিনোদনের একমাত্র মাধ্যম ছিল ছায়াছবি এবং ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান। তখন সবার ঘরে টিভি ছিল না অন্যদের ঘরে টিভি দেখতাম। বাংলাদেশ টেলিভিশনে আমার দেখা তিনজন সফল ব্যক্তিত্ব ফজলে লোহানী, শাইখ সিরাজ এবং হানিফ সংকেত। আমাদের ছেলেবেলা থেকে এই অবধি তিন দশক পর্যন্ত “ইত্যাদি” একচ্ছত্র জনপ্রিয়তার শীর্ষে। বাংলাদেশ বিভিন্ন ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান এবং ব্যাঙের ছাতার মতো অনেক টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠান ইত্যাদির জনপ্রিয়তার ধারে কাছেও যেতে পারেনি। ইত্যাদি তাঁর আপন মহিমায় উদ্ভাসিত হয়ে দর্শক হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। ইত্যাদি এবং হানিফ সংকেত যেন একই সূত্রে গাঁথা একটি মালা। আমাদের ইতিহাস,ঐতিহ্য,সভ্যতা,সংস্কৃতি প্রত্ননিদর্শন ও পর্যটনের জন্য আকর্ষণীয় স্থান গুলোতে গিয়ে ইত্যাদি’র পর্বগুলো সাজানো হয়।
পুরো নাম এ কে এম হানিফ সংকেত। তিনি ১৯৫৭ সালে বরিশাল জেলায় মাতুলায়ে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮০ সালে তিনি প্রয়াত ফজলে লোহানীর ‘যদি কিছু মনে না করেন’ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রথম খ্যাতি লাভ করেন। পরবর্তিতে ‘ইত্যাদি’ নামক ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দর্শক হৃদয়ে চির স্থান করে নেন। আশির দশক থেকে শুরু করে দুই যুগের বেশি সময় ধরে তিনি বাংলাদেশের জনগণকে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’র মাধ্যমে আনন্দ দিয়ে যাচ্ছেন। একাধারে তিনি উপস্থাপক, পরিচালক, লেখক ও প্রযোজক। ব্যক্তিজীবনে তিনি অত্যন্ত সাদাসিধে একজন মানুষ। জনপ্রিয় গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব। মানুষ দর্পনে নিজেকে খুঁজে পেলেও পারিপার্শ্বিকে নিজেকে খুঁজে পাওয়া কঠিনতম কাজ। হানিফ সংকেত সেই দুর্লভ শক্তির অধিকারী। গভীর পর্যবেক্ষণ, রমনীয় বর্ণনা, ক্ষুরধার বুদ্ধিবৃত্তি তার উপস্থাপিত বিষয়গুলোকে করে তোলে জীবন্ত। প্রতিটি লেখাই তাজা অথচ মজা। তিনি সমাজের অনিয়ম অসঙ্গতি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কর্তৃপক্ষকে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেন। আমাদের সমাজ ও সামাজিক দ্বন্দ্বের স্বরূপ নিয়ে তিনি ভাবেন। তাঁর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডেও তা উজ্জ্বলভাবে প্রতিফলিত। হানিফ সংকেত উপস্থাপিত ইত্যাদি অনুষ্ঠানটি দর্শক পছন্দের শীর্ষে থেকে দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে বিটিভিতে চলছে তার বিষয় বৈচিত্ৰ্য, সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি ও উপস্থাপনার নৈপুণ্যে। তাঁর ইত্যাদি অনুষ্ঠানটিই ১৯৯৪ সালের ২৫শে নভেম্বর বিটিভির প্রথম প্যাকেজ অনুষ্ঠান হিসাবে প্রচারিত হয়। ইত্যাদির প্রতিবেদন যেমন বহুমুখী তেমনি সমাজ সচেতনতায়ও থাকে বহুমাত্রিকতা। মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে নিবেদিত প্রাণ মানুষের অনুসন্ধানে হানিফ সংকেত ছুটে বেড়ান। সারাদেশে এবং সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে তুলে আনেন দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের প্রচার বিমুখ অনেক সৎ সাহসী, জনকল্যাণকামী, নিভৃতচারী আলোকিত মানুষদের। যাদের অনেকেই পরবর্তীতে পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিক সম্মান। সামাজিক দায়বদ্ধতাকে প্রাধান্য দিয়ে ইত্যাদি এখন সামাজিক আন্দোলনে পরিণত হয়েছে। ইত্যাদির নিয়মিত পর্ব গুলো হচ্ছে নানা-নাতি, চিঠিপত্র, বিদেশি চলচ্চিত্রের বাংলা সংলাপ, মামা-ভাগ্নে ও দর্শক পর্ব উল্লেখযোগ্য। আগে অনুষ্ঠান সম্প্রচার করা হতো ঢাকা থেকে এখন বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রসিদ্ধ জায়গায় ইত্যাদির পর্বগুলো সাজানো হয়। দর্শক পর্বের বিজয়ীদের মাঝে মহা মূল্যবান বই এবং পরিবেশ বান্ধব গাছ উপহার দিয়ে থাকেন। প্রতি তিন মাস অন্তর বাংলাদেশ টেলিভিশনে ইত্যাদি সম্প্রচার করা হয়। দেশে বিদেশে অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। সমাজ উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ হানিফ সংকেত ২০১০ সালে পান মর্যাদাকর ‘একুশে পদক’। ২০১৪ সালে পেয়েছেন জাতীয় পরিবেশ পদক। বিভিন্ন অসংগতি তুলে ধরে সমাজকে পরিশুদ্ধ করতে তিনি যেমন নিরন্তন কাজ করে যাচ্ছেন তেমনি আমাদের নাগরিক সচেতনতা, কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে ধরে রাখতেও ভূমিকা রাখছেন আন্তরিকতার সঙ্গে। তবে তিনি কেবল হাস্যরস তুলে ধরেন না। বিভিন্ন সামাজিক অসঙ্গতি, অফিস-আদালতের দুর্নীতির বিপরীতে এবং মানবিকতার পক্ষে তার কার্যক্রম চলে। ইত্যাদি বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় টিভি অনুষ্ঠান।সামাজিক দায়বদ্ধতাই হানিফ সংকেত সবসময়ই দেশের নাগরিক হিসেবে তার দায়িত্ববোধ থেকে কাজ করেন। ইত্যাদির মাধ্যমে তিনি সমাজের নানা প্রচলিত অসঙ্গতির বিরুদ্ধে জোরালো কণ্ঠ রাখেন। তাই ইত্যাদি এবং হানিফ সংকেত দর্শক হৃদয়ে আজীবন বেঁচে থাকবেন।টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তে আজ সবার মুখে মুখে “ইত্যাদি” “ইত্যাদি” “ইত্যাদি”।

সর্বশেষ সংবাদ

সড়ক পরিবহন সচিব নজরুল ইসলাম ২ দিনের কক্সবাজারে

হিজড়া আদরীর অধিকার দেবে কে?

পর্যটন ব্যবসায়ী বাহারছরার শহীদ আর নেই, মাগরিবের পর জানাজা

রোহিঙ্গা নারী পাচারে ঢাকা কেন্দ্রিক ৬ জনের সিন্ডিকেট সক্রিয় : সেমিনারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

যে কোন বিষয়ে মানুষের মাঝে আসক্তি তৈরি হয় কেন?

ইলিয়াস কাঞ্চন বাস-ট্রাক শ্রমিকদের টার্গেট কেন?

আবরার হত্যা: বুয়েট থেকে চিরতরে বহিষ্কার ২৬ ছাত্র

আলীকদমে একমাসে ২৬ জন ডেঙ্গু রোগি শনাক্ত

১৫ টি দেশের ২শ’ নৃত্যশিল্পী নিয়ে বসছে নৃত্য উৎসব, উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

রামু সেনা নিবাসের প্রধানকে শুভেচ্ছা জানালেন ভারপ্রাপ্ত ডিসি আফসারুল আফসার

দেশে প্রথম শীর্ষ অস্ত্রের কারিগর আত্মসমর্পণ করছে শনিবার

পেকুয়ায় নবম শ্রেণীর ছাত্রীর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

মোহাম্মদিয়া পাড়া কেন্দ্রিয় জামে মসজিদের নতুন ভবন নির্মান কাজ উদ্বোধন

৭ লাখ মেট্রিকটন উদ্বৃত্ত, তবু কেন লবণের সংকট?

রামু সেনা নিবাসে সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

কক্সবাজার শহরে আজম খান স্মরণে কনসার্টে মাতলো হাজারো দর্শক

গ্রীণলাইন বাস থেকে ১০ হাজার ইয়াবাসহ ড্রাইভার ও হেলপার আটক

৭৬ জলদস্যু আত্মসমর্পনকারী সেভহোমে , অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন

চাকমারকুলে চলছে অবৈধ বালি উত্তোলনের রমরমা ব্যবসা

ভারপ্রাপ্ত ডিসির হস্তক্ষেপে রক্ষা পেল চকরিয়ার বিশাল পাহাড়