হেলাল উদ্দিন, টেকনাফঃ
টেকনাফে মেরিন ড্রাইভ সড়কে ঈদ উল্লাস করতে যাওয়া রোহিঙ্গা বোঝাই পিকআপ ভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ৩ জন নিহত ও ১১জন আহত হয়েছে।
শুক্রবার (৭ জুন) বেলা দেড়টার দিকে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালীপাড়া কচ্ছপিয়া এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে।
হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাকটি ঘটনাস্থলে রয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসসহ স্থানীয় প্রশাসন উপস্থিত হয়েছে। হতাহতের পরিমাণ বাড়তে পারে বলে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে।
স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, একদল রোহিঙ্গা যুবক ঈদ ভ্রমণ উপলক্ষ্যে পিকআপ ভ্যান (চট্টমেট্টো-ন-১১-৭০৩৭) করে গান-বাজনা ও নেচে উল্লাস করছিল।
গাড়িটি মেরিন ড্রাইভের কচ্চপিয়া এলাকায় পৌঁছলে সড়কে থাকা ছাগলকে রক্ষা করতে গিয়েই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে সড়ক হতে প্রায় ১৫ ফুট নীচে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ৩ জন নিহত এবং ১১জন গুরুতর আহত হয়।
দুঘর্টনার খবর পেয়ে বাহারছড়া বিশেষ চেকপোস্টে দায়িত্বরত বিজিবি, ফায়ার সার্ভিস, টেকনাফ ও বাহারছড়া পুলিশের পৃথক দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহত ও আহতরা সকলে বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেন।
টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শামিম হাসান জানান, ঈদ উপলক্ষে কিছু রোহিঙ্গা যুবক পিকআপে করে টেকনাফের দিকে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছে। আহতদের টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা ধারণা করছে পিকআপটিতে বসে নাচানাচি করার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, আহতদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। নিহতদের মৃত্যু নিশ্চিত করার পর পোস্ট মর্টেমের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। অনাকাংখিত দুঘর্টনা পুরো ক্যাম্প জুড়ে ঈদ উল্লাসের পরিবর্তে স্বজন হারানোর শোকে স্তব্ধ হয়ে গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •