মোঃ ফারুক, পেকুয়াঃ

পেকুয়ায় মগনামা লঞ্চঘাট থেকে কুতুবদিয়ায় যাত্রী পারাপারে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছেন সংশ্লিষ্ট ইজারাদারগণ। এমন অভিযোগ করছে দরবার ঘাট ও বড়ঘোপ ঘাট পারাপার করা যাত্রীরা।

প্রতি জন যাত্রী থেকে নিয়ম অনুযায়ী ২০টাকা করে নেওয়ার কথা থাকলেও নিচ্ছে ৪০ টাকা করে। স্পীট বোটে নেওয়া হচ্ছে জনপ্রতি ২শ টাকা করে। এছাড়াও যাত্রীর সাথে থাকা মালামালে দুইগুণ টাকা অাদায় করা হচ্ছে। এ রকম নৈরাজ্য সৃষ্টির করায় সাধারণ জনগণ অতিষ্ঠ হয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

দরবার ঘাট থেকে অাসা রফিক, সুমানা অাকতার ও শফিক নামের তিন যাত্রী বলেন, অামরা নিয়মিতভাবে ২০টাকা দিয়ে যাতায়ত করতাম। সাথে মটর সাইকেলে নিত ৪০টাকা ও মালামাল পরিবহন করলে নিত ৩০ টাকা। কিন্তু এখন বোটে পরিবহন বাবদ প্রতিজন থেকে ৪০টাকা, মটর সাইকেলের জন্য ১শ টাকা অার মালামালের জন্য নিচ্ছে ১শ থেক দেড়শ টাকা। এর প্রতিবাদ করলে বোট থেকে নামিয়ে দেওয়ার হুমকি ও লাঞ্চিত করা হয়। একই কথা বলেছেন বড়ঘোপ থেকে অাসা যাত্রীগণ।

তবে দরবার ঘাটের ইজারাদার পক্ষের লোক মোঃ মকুসদ বলেন, অামরা ডিসি সাহেব ও ইউএনও সাহেবকে অবগত করে অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে মগনামা ইউপি চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিম বলেন, অামি এ বিষয়টি মৌখিকভাবে জানতে পেরেছি। যাত্রীরা যাতে কষ্ঠ না পায় সেই বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ইউএনও মাহাবুব-উল করিম বলেন, অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কোন সুযোগ নাই। অতিরিক্ত টাকা নিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •