ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
৫০০ টাকার একটা বান্ডিল কুড়িয়ে পেয়েছিলেন নুরুল আবছার সিকদার নামের এক যুবক।
বৃহস্পতিবার (৩০ মে) শহরের আলীর জাঁহাল বালিকা মাদ্রাসা সড়কের সামনে থেকে পড়ে থাকা টাকাগুলো পেয়ে লুকিয়ে রাখেননি। নিজের ফেসবুকে ছাড়িয়া দেন। টাকার মালিক খোঁজে বিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশ করেন। ব্যাপক সাড়া পড়ে তার দেয়া স্ট্যাটাসে।
এই সমাজের স্রোতের বিপরীতে এই হেটে দৃষ্টান্ত দেখালেন টগবগে যুবক নুরুল আবছার সিকদার।
টাকার প্রতি লোভ কার নাই? তাও ঈদ মৌসুমে। সহজেই এই লোভ সামলানো যে কারো সম্ভব নয়।
নুরুল আবছার সিকদার শহরের জমিদার পরিবারের সন্তান, কক্সবাজার সিটি কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক।
টাকার মালিকের সন্ধান চেয়ে তিনি লিখেন,
‘আজ বিকাল ৩.২৭ মিনিটে লক্ষাদিক টাকা পাওয়া গেছে।
যোগাযোগঃ ০১৭১১৯৬২৭৮৯/ ০১৮১৯৭০৭৯৫৯ বা SM TELECOM (টাকার টোটাল সংখ্যা শুধু আমি জানি, যে বলতে পারবে সেই পাবে)।’
এই স্ট্যাটাসের কিছুক্ষণের মধ্যেই বিভিন্ন জনের ফোন আসতে থাকে তার কাছে। অবশেষে খোঁজ মেলে টাকার প্রকৃত মালিকের।
টাকার মালিকের নাম আবদুল কুদ্দুস। তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তার গ্রামের বাড়ি কক্সবাজারের পিএমখালীর ছনখোলা।
মুক্তিযুদ্ধা ভাতা হিসেব তিনি ৭০ হাজার টাকা সোনালী ব্যাংকের শাখা থেকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। নিজের হারিয়ে যাওয়া টাকাগুলো ফিরে পেয়ে নুরুল আবছার সিকদার এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল কুদ্দুস। তিনি মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করে দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •