বিশেষ প্রতিবেদক:
জাতীয় শ্রমিকলীগ কক্সবাজার জেলা শাখার আওতাধীন কক্সবাজার সদরের খুরুশ্কুল ইউনিয়ন নবগঠিত কমিটির সভাপতি নাসির উদ্দীন মাহমুদ সরকার বিরোধী নাশকতার মামলার আসামী বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় শ্রমিকলীগের নেতাকর্মীরা এই অভিযোগ করেছেন।

এই দাবি করে খুরুশ্কুল ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের নেতা কামাল উদ্দীন, হাসান শরীফ, জাকের উল্লাহ কুতুবী ও মুজিব জানান, নবগঠিত খুরুশ্কুল ইউনিয়ন কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের বাদ দেয়া হয়েছে। উল্টো বিএনপির রাজনীতিবিদ ও সরকার বিরোধী নাশকতার মামলা আসামী নাসির উদ্দীন মাহামুদকে সভাপতি করা হয়েছে। নাসির উদ্দীন মাহামুদ ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর কক্সবাজার শহরের ফায়ার সার্ভিস এলাকায় বিএনপি-জামায়াতের সরকার বিরোধী মিছিল ও গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগে পুলিশের দায়ের করা একটি নাশকতার মামলা আসামী। যার থানা মামলা নং-৮৪, জিআর-৮৯০/১৮। এই মামলায় তিনি গ্রেফতার হয়ে জেলও খেটেছেন। এমন একজন ব্যক্তিকে সভাপতি করে কমিটি দেয়ায় শ্রমিকলীগের স্থানীয় নেতাকর্মী মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জানা গেছে, গত ১৭ কক্সবাজার সদর উপজেলার আওতাধীন খুরুশ্কুল ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের কমিটি অনুমোদন দেন। নাসির উদ্দীন মাহামুদকে সভাপতি ও এনামুল হক চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি অনুমোদন দেন সদর উপজেলা আহ্বায়ক এম. আবদুল্লাহ।

নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেছেন, লেনদেনের মাধ্যমে গোপনে সরকার বিরোধী নাশকতার মামলার আসামী নাসির উদ্দীন মাহামুদকে সভাপতি করে কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এই কমিটি তৃণমুলের নেতাকর্মীরা মেনে নেয়নি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কক্সবাজার সদর উপজেলা শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক এম.আবদুল্লাহ বলেন, ‘নাসির উদ্দীন মাহমুদ নাশকতার মামলা আসামী ও জেল খাটার বিষয়টি আমরা জানি। তিনি একজন প্রকৃত আওয়ামী লীগ। কিন্তু পারিবারিক জমির সংক্রান্ত শত্রুতার জের ধরে তাকে পরিকল্পিতভাবে নাশকতার মামলা আসামী করা হয়েছিল। তিনি আওয়ামী লীগ হওয়ায় তার জামিনের জন্য আওয়ামী লীগের বিভিন্ন স্তরের নেতারা সুপারিশপত্র দিয়েছেন।’

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •