cbn  

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

কক্সবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব হজরতুল আল্লাম মাওলানা মাহমুদুল হক বলেছেন-ঋতুর মধ্যে বসন্তকাল যেমন সেরা ঋতু। ঠিক তেমনি পূণ্য অর্জনের জন্য, খোদাভীরুতা অর্জনের জন্য রমজান মাস হচ্ছে-বছরের শ্রেষ্ঠ মাস। এ মাসে একটি পূণ্য করলে ৭০ টি পূণ্যের সওয়াব, নফল এবাদত করলে ফরজ এবাদতের সমান সওয়াব। এভাবে আল্লাহতায়লার অসীম রাজকোষ থেকে মুমিনদের সহজে পূণ্য বরাদ্দ পাওয়ার উত্তম মাস হচ্ছে, পবিত্র রমজান মাস। এমাস মুমিনদের জন্য আল্লাহতায়লার প্রদত্ত এক বিশেষ নিয়ামত। তাই পবিত্র রমজান মাসকে যথাযথ কাজে লাগিয়ে তাকওয়া অর্থাৎ খোদাভীরুতা অর্জনের মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য লাভ করতে হবে। একমাত্র তাকওয়াই মানুষকে সর্বাঙ্গীণ কল্যান ও মুক্তি দিতে পারে।
কক্সবাজার পৌসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের এবিসি ঘোনা চেয়ারম্যান ঘাটা মাসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সে’র বার্ষিক ইছালে সওয়াব ও ইফতার মাহফিলে প্রধান আলোচকের আলোচনায় তিনি একথা বলেন। সীতাকুন্ড কামিল (মাস্টার্স) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা মাহমুদুল হক বলেন-পবিত্র কোরআন নাজিলের মাস রমজান মাস, কোরআন সহীহ শুদ্ধভাবে তেলাওয়াত নিয়মিতভাবে অভ্যস্ত করার মাস রমজান, কোরআন বুঝার মাস রমজান, কোরআন বুঝে সেঅনুযায়ী বাস্তবায়নের মাস রমজান। তাই জীবনের সর্বস্থরে পবিত্র কোরআনের সঠিক নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য আল্লামা মাহমুুদুল হক সবার প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সের মতোওয়াল্লী এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী’র সন্ঞ্চালনায় কমপ্লেক্সের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ হালিমুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় বিশেষ আলোচকের আলোচনা করেন-উমখালী করিমিয়া মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সের খতিব হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ ফারুক। অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনা করেন-সাবেক জেলা সমবায় কর্মকর্তা বখতিয়ার কামাল ও মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সে পরিচালনা কমিটির অর্থ সম্পাদক মাস্টার নুরুল আলম। মাহফিলে কোরআন তেলাওয়াত করেন-মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সের পেশ ইমাম হাফেজ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, ইসলামী সংঙ্গীত পরিবেশন করেন-মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ও হাফেজ মোহাম্মদ ছানাউল্লাহ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •