cbn  

আতিকুর রহমান মানিক:
পবিত্র রমজান মাস শুরু হওয়ার পর থেকে কক্সবাজার শহরসহ জেলার হাটবাজারসমূহে হালিম বিক্রির নামে চলছে মহা প্রতারণা। হালিমের নামে মশলাযুক্ত ডাল খাইয়ে গলাকাটা বিল আদায় করছে হোটেল-রেস্তারাগুলো। এমনই অভিযোগ ভোক্তাদের। এতে গোশত তেমন একটা থাকেনা বললেই চলে।
প্রতিবছরের মত চলতি বছরও রমজান মাসের শুরুতে হালিম তৈরী ও বিক্রি শুরু করে হোটেল রেস্টুরেন্টগুলো। জেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক-উপসড়কের ছোট বড় প্রায় সব হোটেল-হালিম বিক্রি শুরু করলেও এর গুনগত মানের তুলনায় দাম নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
কক্সবাজারে বাহারছড়ার বাসিন্দা নোমান জানান, শহরের প্রায় সব হোটেল হালিম তৈরী করলেও এতে গোস্ত নেই বললেই চলে। চিকেন হালিম, মাটন হালিম ও বীফ হালিম নামে বিক্রি করলেও এতে দুই এক টুকরা গোস্ত ছাড়া বাকী সব ডাল ও মসলা। ঝাউতলা এলাকার হামিদ সিকদার বলেন, হালিম নামের এক বাটি ডালের মধ্যে দুই/এক টুকরা গোস্ত দিয়ে ১০০/১৫০ টাকা বিল আদায় করছে শহরের হোটেলগুলো।
বদর মোকাম এলাকার বাসিন্দা জুয়েল বলেন, তথাকথিত অভিজাত একটি হোটেলে চিকেন হালিম দেশী মুরগী দিয়ে তৈরী বলা হলেও এতে ফার্ম মুরগী দেয়া হয়।
বিভিন্ন উপজেলা শহর ও মফঃস্বল হাট বাজারেও একই অবস্হা দেখা গেছে।
হালিম বিক্রির নামে এভাবেই প্রতারনা ও ভোক্তা ঠকানোর খেলায় নেমেছে হোটেল রেস্তোঁরাগুলো। আর রসিক গ্রাহকরা এর নাম দিয়েছেন “হালিম প্রতারনা” ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •