এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

সৌদি আরবের মক্কানগরীতে বসবাসরত মক্কা প্রবাসী কক্সবাজার আওয়ামী পরিবারের উদ্যোগে চকরিয়া-পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলমকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। শনিবার (১৮ মে) বিকালে মক্কানগরীর একটি অভিজাত রেস্তোরায় মক্কা কৃষকলীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম কুতুবীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন। অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের এমপি ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম।

মক্কা কৃষকলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো.আমান উল্লাহ’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দুতাবাসের রাষ্ট্রদুত গোলাম মসীহ, মক্কা হজ¦ অফিসের কাউন্সিলর মাকছুদুর রহমান, উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মো.শাহআলম, এমপির সহ-ধর্মীনি আলহাজ শাহেদা জাফর। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন মক্কা আওয়ামী ফাউন্ডেশনের সভাপতি মো.মোজাম্মেল হক। বক্তব্য রাখেন মক্কা আওয়ামী ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব কাশেদুর রহমান কাসেদ। সংগঠনের উপদেষ্টা নাছির মুন্সি, শামসের আলম, নাছির, ওবায়েদ, টিপু, রিপন, আবদুর রশিদ, হারুনর রশিদ ও সোলেমানের আয়োজনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দসহ সমবেত উপস্থিতি ইফতার মাহফিলে অংশনেন।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধনার জবাবে চকরিয়া-পেকুয়া আসনের এমপি আলহাজ জাফর আলম বলেছেন, প্রবাসী ভাইয়েরা বাংলাদেশের জন্য সম্পদ। পরিবার পরিজনকে দেশে রেখে তাঁরা কায়িক পরিশ্রমের মাধ্যমে অর্থ উর্পাজন করছেন। পরিবারের পাশাপাশি তাদের আয়ের টাকার একটি অংশ আজ বাংলাদেশের জাতীয় অর্থনীতিতে যোগান দিচ্ছে। সর্বোপুরি প্রবাসীরা দেশকে এগিয়ে নিতে জননেত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে বর্তমান সরকারকে সহযোগিতা করছেন। সেই কারনে আজ বাংলাদেশে বিশ^দরবারে উন্নতশীল দেশের মর্যাদার আসন নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, আমার চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার হাজার হাজার বাসিন্দা আজ জীবিকার টানে প্রবাসে আছেন। অনেকে আর্থিকভাবে স্বচ্ছল থাকলেও কিছু ক্ষেত্রে সেইদেশের আইনী জটিলতার কারনে অনেকে কর্মহীন অথবা হয়রাণির কবলে। আশাকরি যেসব দেশে বাংলাদেশের নাগরিক দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন, তাদেরকে হয়রাণির কবল থেকে পরিত্রান পেতে আমাদের দুতাবাস গুলো যথাযথ ভুমিকা পালন করবে। প্রয়োজনে বিষয়টি আমি মহান জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করবো।

এমপি জাফর আলম আরও বলেন, এতসব হয়রাণি ও আইনী জটিলতার মাঝেও বর্তমানে প্রবাসী ভাইদের কায়িক প্ররিশ্রমে আয়ের টাকায় চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার প্রতিটি জনপদ আত্মনির্ভরশীল হয়ে উঠেছে। তাদের পরিবারে ফিরে এসেছে স্বনির্ভতার হাসি। আমরা চাই, প্রবাসী ভাইয়েরা সুন্দর পরিবেশে চাকুরী ব্যবসা করে পরিবারের রুটি-রুজির পথ সুগম করবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •