সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম বলেছেন, অবিভক্ত চকলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম কামাল হোছাইন কোন দিন দলে বিভাজন সৃষ্টি করেননি। প্রত্যেক নেতা-কর্মীকে সাথে নিয়ে প্রত্যেকের প্রাপ্য সম্মান নিশ্চিত করে সাংগঠনিক কর্মকান্ড পরিচালনা করতেন। তাঁর সময়ের রাজনীতি ছিলো মানুষের জন্য সহনশীল। কিন্তু এখন চলছে, তার ঠিক উল্টো। এভাবে রাজনতি চলতে থাকলে মানুষের মনে আস্থা সৃষ্টি করা কঠিন হবে। তাই ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ ও সহনশীল রাজনীতি নিশ্চিত করা গেলেই মরহুম কামাল হোছাইনের আত্মা শান্তি পাবে।

১৯ মে চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠে নাগরিক ফোরাম আয়োজিত এক স্মরণ সভা ও ইফতার আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেজাউল করিম একথা বলেন।

নাগরিক ফোরামের আহ্বায়ক, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ শাহাব উদ্দিন মাহ্মুদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্ততা করেন- সাবেক উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান এস.এম. জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনার ইউনিভাসিটির রেজিষ্ট্রার অধ্যাপক নাজিম উদ্দিন, প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা সাংবাদিক সিরাজুল হক,উপজেলা ভাইস–চেয়ারম্যান মকছুদুল হক ছুট্টু, মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা এরফান উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি জোবায়ের আহামদ বি-এস.সি. সাবেক পৌর কমিশনার ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আলম,আওয়ামীলীগ নেতা এড. শহীদ উল্লাহ চৌধুরী, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি মাষ্টার মোহাম্মদ আলী, সহ-সভাপতিবৃন্দ যথাক্রমে জাফর আলম সিকদার, মাষ্টার আনোয়ার হোছাইন, হাজি জহির আহামদ, আওয়ামীলীগ নেতা জাফর আলম সিদ্দিকী, চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শহীদ উল্লাহ বাহাদুর, আওয়ামী লীগ নেতা বাহাদুল আলম ও চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আক্বিত হোসেন সজীব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •