মুহাম্মদ উল্লাহ মাহদীঃ
কোরআন নাযিলের মাস পবিত্র মাহে রামাদান। রমজান হাজার মাসের চাইতেও শ্রেষ্ঠ মাস। গোনাহ মাফ করে জাহান্নাম থেকে মুক্তি লাভের মাস রমজান। এই রমজান শয়তানকে শেকলবন্দি করে রেখে জান্নাতের দরজাগুলো উন্মুক্ত করে রাখার মহিমান্বিত মাস। রিপুর কামনা, বাসনা, তাড়না বিসর্জন দিয়ে আত্মশুদ্ধির মহান মাস রামাদান।
পাপাকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে ভস্ম করে দিয়ে পবিত্রতা হাসিলের মোবারকময় এ মাস। একটি ইফতারের সময় আরেকটি আল্লাহ দিদার অর্জনের সর্বসেরা খুশি ও আনন্দের গৌরবান্বিত এ মাস। একটি মাস তাকওয়ার ট্রেনিং দিয়ে আরো এগারটি মাস জীবনের প্রতিটি সময়ে ধাপে শিক্ষা অর্জনের এ মাস।
আল্লাহ যেসব বিধিবিধান আমাদের জন্য দিয়েছেন, সেগুলি সন্তুষ্টি চিত্তে আল্লাহকে ভালোবেসে মেনে চলা; যেসব বিধি নিষেধ করেছেন; নবী সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের মাধ্যমে বর্জনের জন্য ঘোষণা দিয়েছেন, সেগুলি থেকে পরহেজ করে চলার নাম হচ্ছে তাকওয়া।
আমরা যে যেখানে বসবাস করিনা কেন সেখানের চারিদিকের দূষিত পরিবেশ। যেমন- নগ্নতা, বেশ্যাপনা, বেহায়াপনা, সুদ, ঘুষ, ব্যাভিচার, রাহাজানি, ধর্ষণ, মিথ্যাবলা, ও অসামাজিক ও অনৈতিক কাজ থেকে সর্বোপরি সকল অপরাধ প্রবণতা থেকে নিজেকে পরহেজ করা চলার নামই হলো তাকওয়া।
প্রশ্ন রয়ে যায়, প্রতি বছর রামজান মাস আসে। ঘুরে ফিরে চলে যায়। আমাদের জীবনকে কলুষযুক্ত করে সত্যিকার সুন্দর, স্বচ্ছ, উন্নত মনমানসিকতা দিয়ে কি জীবনকে সাজাতে পেরেছি?
পরিশুদ্ধ করে প্রশান্ত আত্মার গৌরব অর্জন করতে পেরেছি?
মহান মনিবের কাছে পরিপূর্ণ আত্মসমর্পনের মাধ্যমে ইহকাল ও পরকালের জীবন হবে সুন্দর ও সুশোভিত। মহান আল্লাহ আমাদের সেই তাওফিক দিন। আমিন।

লেখকঃ
মুহাম্মদ উল্লাহ মাহদী
সভাপতিঃ কক্সবাজার মাদানী ফোরাম
মদিনা মনোয়ারা, সৌদিআরব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •