নিজস্ব প্রতিনিধি:

খরুলিয়া এবার প্রভাশালী কর্তৃক এক গণমাধ্যমকর্মীর বসতভিটার দীর্ঘদিনের গাছ কেটে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার খরুলিয়া বাজার পাড়ায় দৈনিক আপন কণ্ঠের পরিচালনা সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম শামস’র পৈত্রিক বাড়ির কয়েক যুগ আগের বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় অর্ধশতাধিক গাছপালা কেটে নিয়েছে প্রভাবশালীরা। দুবাই প্রবাসী উক্ত এলাকার হাবিব উল্লাহ (৪৩) এর নেতৃত্বে একদল সঙ্ঘবদ্ধ লোক সশস্ত্রভাবে শাম্্সের ভিটার সীমানায় রোপিত আনুমানিক দেড় লক্ষ টাকার গাছ কেটে নিয়ে গেছে বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা । পরে সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম শাম্্স খবর পেয়ে ছুটে গিয়ে, উক্ত হাবিব উল্লাহর কাছে জানতে চাইলে, তিনি উল্টো প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে সীমানার ঘেরা বেড়া ও পানি চলাচলের পাইপ ভাংচুর করে ড্রেন বন্ধ করে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে প্রভাবশালীরা পালিয়ে যাওয়ার বলে স্থানীয়রা জানান।
এ বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন, হাবিব উল্লাহ শুধু বিভিন্ন গাছ কেটে নিয়েছে তা নয়, উক্ত বিষয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করলে খুন করে লাশ গুম করবে বলে হুমকি প্রদান করে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত হাবিব উল্লাহর মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, গাছ কে লাগিয়েছে সেটি বড় বিষয় না, গাছগুলো আমার সীমনায় পড়েছে তাই কেটে পেলেছি। কারন আমার ভবন নির্মান করতে হবে।

এদিকে খরুলিয়ার একাধিক ব্যক্তি জানান, হাবিব উল্লাহ নিজে সরকারি খাস জমি দখল করে আছে। এখন সেই খাস জমি দখল করে বহুতল ভবন নির্মান করতে উঠে পড়ে লেগেছে। সেটি কার্যকর করতে অন্যজনের খতিয়ানভূক্ত জমিতে সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে।

এবিষয়ে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরিদ উদ্দিন খন্দকার এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এলাকার পরিবেশ শান্ত রাখতে কোন সন্ত্রাসীর জায়গা হবে না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •