cbn  

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
মহেশখালী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও মহেশখালী পৌরসভার কাউন্সিলর ছালামত উল্লাহর উপর নৃশংস হামলার মুলহোতা মহেশখালী পৌর মেয়র মকছুদ মিয়াকে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার (১৩মে) সকাল ১১টায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে মহেশখালীর বিভিন্ন স্তরের নারী-পুরুষ এবং মহেশখালী ও কক্সবাজারের কর্মরত সাংবাদিকেরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধের মহেশখালীর শীর্ষ রাজাকার হাশেম সিকদারের পুত্র ও এক সময়ের বিএনপি নেতা হাইব্রিড আওয়ামী লীগ মকছুদ মিয়ার নেতৃত্বে গত ২ এপ্রিল মহেশখালী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও মহেশখালী পৌরসভার কাউন্সিলর ছালামত উল্লাহর উপর নৃশংস হামলা চালানো হয়। এতে তিনি মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন। এই ঘটনায় মেয়র মকছুদ মিয়াকে প্রধান আসামী করে মামলা হলেও তিনিসহ অন্যান্য আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অন্যদিকে এই ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য রাজাকার পুত্র মেয়র মকছুদ মিয়ার টাকার মিশন নিয়ে নেমেছেন। একই সাথে একটি রাজনৈতিক পক্ষকে ম্যানেজ করে সে বীরদর্পে রয়েছে। উল্টো মামলা তুলে না নিলে ছালামত উল্লাহকে এবার হত্যা করা হবে হুমকি দিচ্ছে।’

বক্তারা আরো বলেন, ‘ছালামত উল্লাহ একজন আওয়ামী লীগের নিবেদিত প্রাণ কর্মী। ছাত্রজীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করে এসেছেন। একই সাথে তিনি মহেশখালী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক। রাজাকারপুত্র মকছুদ মিয়ার অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় এমন একজন মানুষকে নৃশংস হামলা চালানো কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। তাই এই ঘটনার মূলহোতা মকছুদ মিয়াসহ অন্যান্য হামলাকারীদের গ্রেফতার করে কঠিন শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। না হয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্বপ্নের সুশাসনের বাংলাদেশ কমিটমেন্ট ব্যর্থ হয়ে যাবে।’

এসময় উপস্থিতরা মকছুদ মিয়াকে অতিস্বত্বর গ্রেফতার করা না হলেও আরো আন্দোলনের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •