cbn  

জাহাঙ্গীর আলম, ইনানী:
কক্সবাজারের উখিয়া সোনার পাড়ায় পরিত্যাক্ত এক স্কুল ভবন মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ভয়াবহ ফাটল সৃষ্টি হওয়ায় ভবনটি যে কোন মুহুর্তে ধ্বসে পড়ে ভয়াবহ দূর্ঘটনা ঘটতে পারে।
ভবনটি সাইক্লোন শেল্টার হিসেবে নির্মিত হলেও ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যাওয়ায় বিপদের সময় আশ্রয় নেয়না।পরে স্কুলের ছাত্রাবাস হিসেবেও ভবনটি ব্যবহার করা হয়।কিন্তু এখন সবচেয়ে বিপজ্জনক হয়ে দাঁড়িয়েছে এই পরিত্যক্ত সাইক্লোন শেল্টারটি। যেকোনো সময় ধ্বসে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।ভবনটির উত্তর পাশে সোনার পাড়া উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠ আর পাশেই রয়েছে সোনার পাড়া দাখিল মাদরাসা।
যেখানে বিদ্যালয় এবং মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রীরা খেলাধুলা করে এবং ভবনটির সাথে ঘেঁষে নির্মিত হয়েছে একটি মসজিদ ও।সব মিলিয়ে চরম আতঙ্কে দিন কাটে ছাত্র-ছাত্রী এবং মসজিদের মুসল্লিদের, এলাকার মানুষও। এই ভবনের নিচ দিয়ে চলাফেরা করে।সব চেয়ে আতঙ্কের বিষয় হলো শিক্ষার্থীদের জন্য।কারণ দিনের বেশির ভাগ সময় শিক্ষার্থীদের সেখানে কাটাতে হয়।
ভবনটির দরজা জানালা সব ভেঙ্গে গেছে। পলেস্তরা খঁসে পড়েছে।দেওয়ালে ফাটল ধরে ভয় পাওয়ার মতো অবস্হা।
দেখলেই মনে হবে ভবনটি এখনি ধ্বসে পড়বে। ভবনটি পরিত্যক্ত হওয়ায় সেখানে কেউ যাতায়াত করেনা।ফলে মাকদসেবীদের আড্ডাখানা হিসেবে ব্যবহার করা হয়।দিনে-রাতে সেখানে জুয়ার আসর বসে।মাদকসেবীরা নিরাপদ স্হান হিসেবে এই ভবনটি বেঁচে নেয়।
এই অবস্হায় ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে ভেঙ্গে নতুন ভবন নির্মাণের দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পুরাতন ভবনটি ফাটল সৃষ্টি হয়ে ভবনের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশ ছিড়ে পড়েছে এ ছাড়া পুরো ভবনের অনেকাংশ আস্তর ঝরে গিয়ে ইট লোহা বের হয়ে আছে। অনেক আগেই নষ্ট হয়ে পড়েছে উক্ত ভবনের দরজা-জানালা। ভয়াবহ ফাটলে ঝরাজীর্ণ হয়ে মারাত্মক ঝুকিপূর্ণ ভবনটি বহু বছর ধরে পরিত্যাক্ত অবস্থায় রয়েছে। ভবিষ্যতে ভবন ধ্বসের মতো মারাত্মক ঘটনাও ঘটে যেতে পারে।
এনিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি রফিক মেম্বার জানান, এবিষয় নিয়ে একটা লিখত অভিযোগ দেয়া হয়েছিল উপজেলা নিবাহী কমকর্তার কাছে।
জানতে চাইলে জালিয়া পালং ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন এই ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নজর আনা খুব জরুরী বলে মনে করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •