নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাড়িতে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে নুরুল হক প্রকাশ কালাবদা নামে এক ব্যক্তি। ওই ঘটনায় তাকে আটক করেছে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজার সদরের পোকখালী ইউনিয়নের পূর্ব গোমাতলী এলাকায়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে পূর্ব গোমাতলী এলাকার হেলালের উদ্দিনের মেয়ে সদ্য দাখিল পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া মেয়েকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন একই এলাকার নুরুল হক প্রকাশ কালাবদা। তার কু-প্রস্তাব বার বার প্রত্যাখান করে আসছে মেয়েটি। তারই ধারাবাহিকতায় গত ৯ মে সকাল ১১ টার দিকে ওই মেয়ের বাড়িতে গিয়ে মা না থাকার সুযোগে ধর্ষণের চেষ্টা করে নুরুল হক। ওই সময় মেয়ের শোর চিৎকারে মা এবং স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে ঘটনাস্থান থেকে পালিয়ে যায় নুুরুল হক।

হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী সাকেরা বেগম জানান, তার বাড়িতে গিয়ে মেয়েকে একা পেয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে নুরুল হক। ওই সময় বাধা দেয়ায় ধারালো ছুরি দিয়ে তাকে এবং মেয়েকে কুপিয়েছে নুরুল হক। ওই সময় স্থানীয়দের সহযোগীতায় রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে আহত মা-মেয়েকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে ধর্ষণের চেষ্টায় আহত হওয়া মেয়ে সদর হাসপাতালের ওসিসি ইউনিটে চিকিৎসাধীন এবং ৫ম তলায় সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এদিকে এই অভিযোগে অভিযুক্ত আসামীকে আটক করেছে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সনজিদ চন্দ্র নাথ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তিনি জনান, অভিযুক্ত নুরুল হক প্রকাশ কালাবদাকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •