cbn  

আব্দুস সালাম, টেকনাফ:
টেকনাফের নাজির পাড়া (চকবাজার) এলাকায় শিক্ষানবিস আইনজীবী ও বিসিএস পরীক্ষার্থীর বাড়িতে স্বশস্ত্র হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় ৩ নারীসহ ৪ জনকে রক্তাক্ত করেছে চিহ্নিত দুর্বৃত্তরা। এতে ২টি বসত-বাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। হামলার শিকার গৃহকর্তা বাবুল জানায়-বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে অর্তকিতভাবে হঠাৎ টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজির পাড়া এলাকার সেবর মিয়ার ছেলে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী জাহেদ হোসেন (৪৫) ও একই এলাকার নাগু মিয়ার ছেলে সন্ত্রাসী জাগির হোসেন (৪০) এদের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী মোঃ আব্দুল্লাহ প্রকাশ কালাইয়া(৩০),নবী হোসেন(৩৫),লেডাইয়া(২২),কেফায়েত উল্লাহ(১৯) ও সৈয়দ হোসেন(৩০) সহ আরো ৭/৮জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও দা-কিরিচ নিয়ে সদরের নাজির পাড়া (চকবাজার) এলাকার শিক্ষানবীশ আইনজীবী ও ৪০তম বিসিএস পরীক্ষার্থী মৃত জাফর আলমের ছেলে বাবুল হাসানের বসত-বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর করে। এসময় মা জাহেদা বেগম (৪৫), খালা মাইমুনা,রমিদা বেগম বাধা প্রদান করিলে ধরে এনে বেধঁড়ক পিটিয়ে হাত,পা ও কোমর ভেঙ্গে দিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে যায়। সন্ত্রাসীরা বসত-বাড়ির রক্ষিত জিনিসপত্র,স্বর্নালংকার ও বাড়ি ভাংচুর এবং ৩ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন করে। খবর পেয়ে আইন-শৃংখলা রক্ষার্থে টেকনাফ থানার উপ-পরিদর্শক স্বপন চন্দ্র দাশের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। পরে আহতদের উদ্ধার করে দ্রুত চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা স্থাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেন।
এ ব্যাপারে টেকনাফ থানার উপ-পরিদর্শক স্বপন চন্দ্র দাশ বলেন, কয়েকজন দূর্বুত্তের নেতৃত্বে লাঠিসোটা,দা নিয়ে বাবুলের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালায় । আমরা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল হতে আহত অবস্থায় মহিলাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করি। এ বিষয়ে সামাজিকভাবে ঘটনার শালিস-বৈঠক হবে বলে তিনি জানান।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, এ ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। জড়িতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ কর হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •