আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
মিয়ানমারে রাখাইন, কোচিন ও শান রাজ্যে রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি দেশটির ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ওপর যৌন ও হত্যাযজ্ঞ অব্যাহত থাকায় দেশটিতে অস্ত্র বিক্রির ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আরও এক বছর বাড়িয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। সেই সঙ্গে দেশটির ১৪ জন জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার মেয়াদও এক বছর বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে আগামী বছরের (২০২০ সাল) ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই ক্ষেত্রেই এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে। সোমবার (২৯ এপ্রিল) এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপীয় কাউন্সিল।

সোমবার ব্রাসেলস থেকে পাঠানো ২৮টি সদস্য দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানদের নিয়ে গঠিত ইউরোপীয় কাউন্সিলের এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য গত বছরের ২৬ এপ্রিল মিয়ানমারের ১৪ জন জ্যেষ্ঠ সামরিক ও সীমান্তরক্ষী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা এবং দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রির ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সোমবার ইউরোপীয় কাউন্সিলের সিদ্ধান্তে সেই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আরও এক বছর বাড়াল।

এই নিষেধাজ্ঞার কারণে অস্ত্র বিক্রির পাশাপাশি মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনীকে প্রশিক্ষণ ও সহযোগিতা দেয়া থেকে বিরত থাকবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এছাড়া নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা দেশটির ১৪ প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা ইইউভুক্ত দেশ সমূহে করতে পারবেন না। সেই সঙ্গে ইইউ’র কোনো দেশে এসব কর্মকর্তার কোনো সম্পদ থাকলে তা জব্দ করা হবে। সূত্র : আল জাজিরা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •