ডেস্ক নিউজ:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর শুরু হয়েছে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কর্মকর্তারা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করছেন। কয়েক ধাপে সম্পন্ন করা হবে এই কার্যক্রম। এর মধ্যে গত ২৩ এপ্রিল শুরু হওয়া প্রথম ধাপের ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শেষ হবে ১৩ মে।

ইসি সূত্র জানায়, এই ভোটার তালিকা হালনাগাদে যাদের বয়স ২০০১ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে, যাদের জন্ম ২০০২ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে, যাদের জন্ম ২০০৩ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে এবং যাদের জন্ম ২০০৪ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগের- এসব ব্যক্তিদের তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এ ক্ষেত্রে যারা নতুন ভোটার হতে চান, তাদেরও কিছু কাগজপত্র দিতে হবে ইসির তথ্যসংগ্রহকারীকে।

ইসি সূত্র জানায়, নতুন ভোটার হতে যাওয়া ব্যক্তিকে ১৭ ডিজিটের জন্মনিবন্ধন সনদ বাধ্যতামূলকভাবে দিতে হবে। সেই সঙ্গে দিতে হবে ইউপি চেয়ারম্যান/সিটি কর্পোরেশন/পৌর মেয়র/কাউন্সিলরের দেয়া নাগরিকত্ব সনদ।

এ ছাড়াও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে লাগবে জেএসসি, এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় পাসের সনদের কপি এবং বাড়িভাড়া/ হোল্ডিং ট্যাক্স পরিশোধের রশিদের কপি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •