পেকুয়া সংবাদদাতা:
পেকুয়া উপকূলের মানুষের জন্য নির্মিত একটি স্কুল কাম সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণ করেছে সৌদি সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন ফায়েল খায়ের কর্মসূচি। সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ে উপজেলার উপকূলীয় ইউনিয়ন মগনামার শাহ রশিদিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকায় এ সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণ করা হয়।

সোমবার (২৯এপ্রিল) এ সাইক্লোন শেল্টার কাম স্কুল ভবন স্থানীয় প্রশাসনের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান ও পরিচালনা কমিটিকে হস্তান্তর করা হয়।

পেকুয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাহবুবউল করিমের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন পেকুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ফায়েল খায়ের কর্মসূচির কান্ট্রি কো অর্ডিনেটর সুফী মুস্তাক আহমেদ, এলজিইডি’র প্রকৌশলী মোহাম্মদ রেজাউল করিম ও ফায়েল খায়ের কর্মসূচির প্রকল্প পরিচালক পল নরম্যান বার্ড।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, হস্তান্তরকৃত প্রতিটি শেল্টারে দুর্যোগের সময় দুই হাজার মানুষ ও পাঁচশত গবাদিপশু আশ্রয় নিতে পারবে। প্রতিটি স্থাপনা ২৪০ শিক্ষার্থীকে শিক্ষা প্রদানে সহায়ক হবে। এসব শেল্টার প্রতি ঘন্টায় ২৬০ কি.মি. বেগ পর্যন্ত বায়ু প্রবাহ (ঘূর্ণিঝড়) প্রতিরোধে সক্ষম। ভবনগুলোতে পরিবেশ বান্ধব ডিজাইন, সৌর বিদ্যুতের ব্যবস্থা, বীকন লাইট, উন্নতমানের আসবাবপত্র সংযোজন ছাড়াও সুপেয় পানি সরবরাহ এবং বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা রাখায় উপকূলীয় অঞ্চলে দুর্যোগের সময় বিশুদ্ধ পানির অভাব পূরণ হবে।

সৌদি আরবের প্রয়াত বাদশা আবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজের দেয়া ১৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদানে বাংলাদেশের সিডর আক্রান্ত ১৩ জেলার ৪১টি উপজেলায় ১৭২টি স্কুল কাম সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৬৪টি শেল্টার গতকাল সোমবার পর্যন্ত হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকি আটটি শেল্টার জুন মাসে হস্তান্তর করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •