আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
ব্যঙ্গচিত্রে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনুগত কুকুর হিসেবে এঁকে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে দেশটির প্রভাবশালী দৈনিক দ্য নিউইয়র্ক টাইমস।

গত বৃহস্পতিবার প্রিন্ট সংস্করণে প্রকাশিত এই ব্যঙ্গচিত্র টুইটারে শেয়ার হওয়ার পরই ইসরায়েলি ইহুদিদের বেশ কিছু সংগঠনের রোষানলে পড়ে দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসের সম্পাদকমণ্ডলী। পরে বাধ্য হয়ে রোববার ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চায় মার্কিন এই দৈনিক।

ব্যঙ্গচিত্রে দেখা যায়, অন্ধ ট্রাম্পকে পথ দেখাচ্ছেন ইহুদি অনুগত কুকুর নেতানিয়াহু। ব্যঙ্গচিত্রটি কাগজে ছাপা হয়েছে ক্যাপশন ছাড়াই। এতে নেতানিয়াহুকে স্টার অব ডেভিড চিহ্নধারী কলারে বাঁধা শেকলের প্রান্তে ট্রাম্পের পোষা কুকুর হিসেবে আঁকা হয়েছে।

কুকুরের গলায় বাঁধা শেকল ধরে হাঁটছেন অন্ধ ডোনাল্ড ট্রাম্প; যার মাথায় আঁকা হয়েছে পেনশনভোগী ইহুদিদের স্কাল ক্যাপ।

পর্তুগালের লিসবনভিত্তিক প্রথম সারির দৈনিক এক্সপ্রেসো নিউজপেপারের কার্টুনিস্ট অ্যান্তনিও মোরেইরা আন্তুনেস বিতর্কিত এই ব্যঙ্গচিত্রটি এঁকেছেন। সমালোচনার মুখে নিউইয়র্ক টাইমস বলছে, আসলে এই ব্যঙ্গচিত্রটি কিছুটা আপত্তিকর ছিল। বিবেচনার ভুলেই এটি প্রকাশিত হয়েছে।

আরও পড়ুন : ভারতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের নগ্ন করে চেক করা হলো কে ঋতুবর্তী

শনিবার প্রথম দফায় নিউইয়র্ক টাইমস ক্ষমা প্রার্থনা করে বিবৃতি দিলেও মার্কিন ইহুদিদের সংগঠন আমেরিকান জিউস কমিটি (এজেসি) বলছে, ক্ষমা করা হবে না। তারা অন্য কোনো দেশ কিংবা নেতাকে নিয়ে এ ধরনের কার্টুন আঁকলে কি ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হতো সেই উদাহরণ তুলে ধরেন।

তীব্র ক্ষোভের মুখে রোববার দ্বিতীয় দফায় দীর্ঘ এক বিবৃতি দিয়ে ক্ষমা চায় মার্কিন এই দৈনিক। বিবৃতিতে বলা হয়, গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের বাইরের প্রিন্ট সংস্করণে অ্যান্টি সেমিটিক কার্টুন প্রকাশের ঘটনায় আমরা গভীরভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। একই সঙ্গে আমরা আশ্বস্ত করছি যে, ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না।

সূত্র : ডেইলি মেইল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •