হাসান তারেক মুকিম, রামু:

রামু উপজেলা পরিষদে যোগদান করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল। তিনি ২৮এপ্রিল রবিবার বিকেল ৪টায় একটি বিশাল জনতার বহর সহকারে উপজেলা পরিষদে যোগদান করেন। একই দিন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফসানা জেসমিন পপি ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সালাউদ্দিনও পরিষদে যোগদান করেন।

উল্লেখ্য গত ২৫ এপ্রিল চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে শপথ বাক্য পাঠ করেন নবাগত চেয়ারম্যানবৃন্দ। পরিষদে যোগদানের পূর্বে উপজেলা শহীদ মিনারে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জনতার উদ্দেশ্যে চেয়ারম্যান কাজল বলেন, বিগত ২৪ মার্চের ঐতিহাসিক নির্বাচনে এই এলাকার সাধারন জনতা আমাকে বিজয়ী করেছে। একদিকে বড়নেতার কালো টাকা, চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ এলাকার প্রভাবশালী মহল আর অপরদিকে আমার পক্ষে এলাকার অতি সাধারন জনগন। নির্বাচনে দাম্ভিকতার বিরুদ্ধে জনতারই বিজয় হয়েছে। নির্বাচন পরবর্তী যারা রামু চৌমুহনীতে মিটিং ডেকে বলেছিল আামার গেজেট হবে না, আমার শপথ আটকে দেয়া হবে, আমাকে অফিসে আসতে দিবে না এমনকি আমাকে রামুতেই থাকতে দেয়া হবে না। তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন গাধার মত গল্প বলে আমাদেরকে বিভ্রান্ত করার কোন সুযোগ নেই। আমরা চাই রামুতে সুশৃংখল পরিবেশের মাধ্যমে আগামী দিনে উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম পরিচালিত হবে। কোন হুমকি ধমকি দিযে আমাদের পদচারনাকে বাধাগ্রস্থ করার অপপ্রয়াস করা হলে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে বলে হুশিয়ারী উচ্ছারন করেন।

তিনি মাননীয় প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত রূপকল্প ২০৪১ প্রতিষ্ঠা ও বাস্তবায়ন করে রামু উপজেলা পরিষদকে একটি মড়েল উপজেলায় রূপান্তর করার জন্য উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ ও এলাকার জনগনের সহযোগীতা কামনা করেন।

রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুচ রানা চৌধুরীর সঞ্চালনায় তিনি বলেন, অনেক আশা আকাংখা নিয়ে এলাকার মানুষ আমাকে উপজেলা চেয়ারম্যান বানিয়েছে। এলাকার মানুষের কাঙ্গিত আশার প্রতিফলন ঘটাতে তিনি সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিযে যাবেন এবং এলাকাভিত্তিক কমিটির মাধ্যমে সমহারে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এসময় রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের এগার ইউনিয়নসহ ওয়ার্ড় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্চাসেবকলীগ, ছাত্রলীগসহ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে হাজার হাজার জনসাধারন উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •