অনুপম বড়ুয়া টিপু, প্যারিস থেকে
‘আজি পুরান যা কিছু দাও গো গুছিয়ে, মলিন যা কিছু ফেল গো মুছিয়ে’ দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের এই গানকে তুলে ধরে বাংলা নতুন বছর ১৪২৬ কে বরণ করে নিলো উদীচী ফ্রান্স সংসদ।
দিন ভর নানা আয়োজনে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার নানা বয়সের নারী পুরুষ শিশুরা বৈশাখী সাজে মেতে উঠেন বৈশাখী আনন্দে।
২১ এপ্রিল ২০১৯ স্থানীয় সময় বিকাল ৪ টায় শুরু হওয়া এই উৎসবের শুরুতেই ছিলো বাঙ্গালীর ঐতিহ্যবাহী পিঠাপুলির প্রতিযোগীতা। ফ্রান্স প্রবাসে বসবাসকারী ১১ জন গৃহিণী এই প্রতিযোগীতায় অংশ নেয়।
সন্ধ্যা ৬টায় মুল অনুষ্ঠানের শুরুতেই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন হাওলাদারের সঞ্চালনায় এবং সভাপতি কিরণ্ময় মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ দুতাবাস ফ্রান্সের কাউন্সিলর এস এম মাহমুদুল হক, মেরি দা অবারভিলিয়ের সহকারী মেয়র সোয়াজিক নেদেলেক, ইনালকো বিশ্ববিদ্যালিয়ের বাংলা বিভাগের প্রধান ও অধ্যাপক ড. ফিলিপ বেনোয়া, মনোবিজ্ঞানী গবেষক ড. উত্তম বড়ুয়া, সমাজকর্মী ও শিক্ষয়ত্রী হাসনাত জাহান, চলচ্চিত্র নির্মাতা আমিরুল আরহাম,মেরি দা উবারভিলিয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পরিচালক কার্লোস সামেদু, ড.ছন্দা বড়ুয়া এবং মেরীর কর্মকর্তা হালফ হোপম্যান।
শুভেচ্ছা বক্তব্য শেষে পিঠাপুলির প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে পুরুস্কার বিতরণ করা হয়।
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রথম পর্যায়ে উদীচী পরিচালিত বাংলাভাষা ও সাংস্কৃতিক কেন্দের ছোট্ট ছোট্ট শিশু-কিশোরদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় তবলা, গান, নাচ, আবৃত্তি ও নাটক। উদীচী ফ্রান্স সংসদের সংগীত বিভাগের নির্বাহী সম্পাদক সুস্মিতা বড়ুয়ার পরিচালনায় এই অংশে তবালার পরিচালনায় ছিলেন অনুভব বড়ুয়া, শাপ্লু বড়ুয়া ও অভিজিৎ বড়ুয়া জিতু। নৃত্য পরিচালনা ও পরিকল্পনায় ছিলেন জি এম শরিফুল ইসলাম ও বিশেষ সহযোগীতায় ছিলেন সুবর্না তালুকাদার। গানের অনুষ্ঠান পরিকল্পানায় ছিলেন রোজী মজুমদার ও সাগর বড়ুয়া, কবিতার পরিকল্পনায় ছিলো শর্মিষ্ঠা বড়ুয়া এবং নাটকের পরিকল্পনায় ছিলেন কিরণ্ময় মন্ডল।
দ্বিতীয় পর্বে উদীচীর শিল্পীদের পরিবেশনায় ছিলো গান ও কবিতা। সুস্মিতা বড়ুয়ার নেতৃত্বে এই পর্বে শর্মিষ্ঠা বড়ুয়া ও সাইফুল ইসলামের পরিচালনায় সমগ্র বাংলার বিভিন্ন অঞ্চল সহ আদিবাসীদেরও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সংগীত, নৃত্য, আবৃত্তি পরিবেশিত হয়।
উদীচীর মঞ্চ ও সাজসজ্জা বিভাগের নির্বাহী সম্পাদক দুলাল চন্দ মিশেলে নেতৃত্বে অনুষ্ঠানের মঞ্চ পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে ছিলেন রোজী মজুমদার ও সাখাওয়াত হোসেন হাওলাদার, শুভাশীষ রায় শুভ, পঙ্কজ কান্তি দে, মোঃ আবুল মনসুর, রাজু আহমেদ, প্রণয় বড়ুয়া ছোটন বড়ুয়া সহ আরও অনেকে।
এছাড়াও দেশীয় মূখরোচক খাবার ও দেশীয় পোষাক পরিচ্ছদের স্টল বৈশাখী আয়োজনে বাড়তি আমেজ তৈরী করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •