মোহাম্মদ হোসেন,হাটহাজারী :
বাজারে জলাতঙ্ক গরুর মাংস বিক্রি করার খবর পেয়ে মাংস বাজার অভিযান পরিচালনা করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাটহাজারী পৌর প্রশাসক রুহুল আমিন ।  শনিবার(২৭ এপ্রিল) পৌর বাজারে এক ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয় । কাচাবাজারের গরু মাংস বিক্রেতা কসাই হাচি মিয়ার পেছনের দোকানে ওই গরুর মাংস উদ্ধার করা হয়। অবশ্য ম্যাজিস্ট্রেট আসার খবর পেয়ে মাংস বিক্রেতা পালিয়ে যায়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানায়, ১২ হাজার টাকায় গরু কিনেছেন হাসি মিয়া। সেই গরু কুকুরের কামড়ে জলাতঙ্ক এ আক্রান্ত হয়ে যখন মৃত প্রায় তখন হাচি মিয়া মালিক কে উদ্ধারে এগিয়ে আসেন।কিনে নেন ১২ হাজার টাকায় ওই প্রায় মৃত গরুটি। গরু মালিকের বাড়ি কাচা বাজার বাসস্ট্যান্ডে ছুটোছুটি করে গিয়ে দেখি দোকান বন্ধ করে পলাতক হাচি মিয়া। এই ভাবে মাঝে মধ্যে বাজারে এই ধরনের জলাতঙ্ক গরুর মাংস বিক্রি হলেও কেউ না জেনে মাংস বিক্রি করেন। মোট গরুর মাংস ৪২ কেজি অভিযানের আগে বিক্রি হয়েছে প্রায় ৩২ কেজি। অভিযানের বিষয় জানতে পেরে মাংসের দোকান বন্ধ করে আরো ১০ কেজি মাংস নিয়ে পালিয়ে যায় দোকানদার। এই ভাবে মানুষের সাথে প্রতারণা করে জলাতঙ্ক রোগে আক্রান্ত কোন গরু মাংস বাজারে বিক্রি করলে তাকে জেল জরিমানা সতর্ক করে দেন ম্যাজিস্ট্রেট।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •