বিশ্বজিত বড়ুয়া রুপম  :

দূর প্রবাসে থেকেও ভুলে যায়নি বাঙ্গালি সভ্যতা,সংস্কৃতি,যেন মিশে আছে তাদের আষ্টে পিষ্টে,গৌরবে ঐতিহ্যর স্বমহিমায়। রৌদ্রর মিষ্টি আলোয় ,অতীতের সব কষ্ট ভুলে,আগামীর পথে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশ কমিউনিটি মেটস বাসিরা “পান্তা ইলিশ আর ভর্তা ভাজি বাঙ্গালির প্রাণ, নতুন বছরে সবাই গাইবে বৈশাখের গান” এই স্লোগানে শুভ বর্ষকে বরণ করল শুভ্র কুসুম উপহারে, আবার কেউ কেউ তাদের প্রাপ্তিতা নিয়ে আনন্দের উচ্ছ্বাসে মেতে উঠে ক্লান্তিহীন পথে ভালোবাসার একটু ছোঁয়ায়।

যান্ত্রিক নাগরিক কোলাহল পেরিয়ে সময়ের একটু ফাঁকে,বহুদিনের লালিত স্বপ্ন, বহু আকাঙ্খার প্রত্যাশিত প্রতিফলনে, গত ২২ এপ্রিল ২০১৯ ইংরেজি তারিখে ১৪২৬ বাংলার বর্ষ বরণ উপলক্ষে ফ্রান্সের মেটস শহরের সেইলে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ফ্রান্স প্রবাসি বাঙ্গালীর প্রাণের উৎসব,বাঙ্গালি ঐতিয্য ১ লা বৈশাখ। একটু দেরিতে হলেও সবার উপস্থিতিকে সামনে রেখে বিপুল উৎসাহ,উদ্দিপনার মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় এই মিলন মেলা।

রব রব সাজে বর্ণিল আয়োজন, মুখরিত ছিল উৎসবের আমেজ। সকাল থেকে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অতিথিদের আগমন এবং নানান রঙে,নানান সাঁজে দেশীয় ঐতিয্য’র প্রাধান্য এমনকি ছোট ছোট কোমলমতি ছেলে মেয়েদেরকে তাদের দেশীয় সংস্কৃতি থেকে ভুলে যেতে দেয়নি তাদের অভিভাবকরা। দেশীয় পোশাক এবং তাদের বাঙ্গালী সভ্যতা তার প্রমান মেলে তারা কতটুকু বাংলার ঐতিয্যকে ধারন করে আছে তাদের প্রাণে ।

পান্তা ইলিশসহ এবং হরেক রকম দেশীয় ভোজনে পূণ্যতায় ভরিয়ে দেয়। মেয়েদের বালিশ খেলাএবং ছেলেদের ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানকে আরো প্রাণবন্ত করে তোলে। সবশেষে সবাইকে অনুষ্ঠানে আসার জন্য এবং সার্বিকভাবে সহযোগীতা করার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •