৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি!

সিবিএন ডেস্ক:
৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির শীর্ষ দুই নেতা। সাতদিনের মধ্যে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে আওয়ামী লীগ নেতাদের আল্টিমেটামের পরিপ্রেক্ষিতে এ কথা বলেছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে দায়িত্বপ্রাপ্ত চার আওয়ামী লীগ নেতার সঙ্গে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর বৈঠকে এসব কথা হয়েছে। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।
এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘দ্রুততম সময়ে ছাত্রলীগের কমিটি দেওয়ার ব্যাপারে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা সংগঠনটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা বলেছেন, ৪৮ ঘণ্টায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি দিতে প্রস্তুত তারা। তাদের এই সময়ের মধ্যেই কমিটি প্রকাশ করতে বলা হয়েছে। সেটা সম্ভব না হলে সর্বোচ্চ সাতদিনের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে তাদের।’
বৈঠক সূত্র জানায়, নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে চলার বার্তা দেওয়া হয়েছে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে। তাদের ভুল বোঝাবুঝির অবসান হয়েছে বলেও আওয়ামী লীগ নেতাদের জানিয়েছেন তারা। এছাড়াও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে আজ-কালের মধ্যে দেখা করে নিজেদের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার সুযোগও চেয়েছেন এই দুই নেতা।

ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন আওয়ামী নেতাদের সঙ্গে তাদের আজকের (বৃহস্পতিবার) বৈঠকের কথা নিশ্চিত করলেও বিস্তারিত কিছু বলতে রাজি হননি।

তবে জানা যায়, গত সোমবার (১৫ এপ্রিল) ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে দীর্ঘসূত্রতা ও নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ভূমিকা নিয়ে গণভবনে ক্ষোভ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। দ্রুত পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে ব্যর্থ হলে প্রয়োজনে ছাত্রলীগের বর্তমান দুই সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটি ভেঙে নতুন সম্মেলন করার কথাও বলেছেন। সে সময় আওয়ামী লীগের এই চার নেতাকে ছাত্রলীগের বিষয়টি দেখভালের দায়িত্বও দিয়েছেন তিনি।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পর এই চার নেতা গত মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ছাত্রলীগের আগের কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের সঙ্গে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকের ধারাবাহিকতায় আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন তারা।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চৈত্রসংক্রান্তি ও বর্ষবরণ উপলক্ষে কনসার্টের আয়োজন করে ছাত্রলীগের একাংশ। অন্য অংশের নেতাকর্মীরা অনুষ্ঠানের আগের দিন রাতে ব্যাপক ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগ করে মঞ্চ ভেঙে দেয়। এরপরই ছাত্রলীগ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন শেখ হাসিনা।
প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগ ২৯তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় নিজেরা কমিটি গঠন করতে ব্যর্থ হলে ৩১ জুলাই অভিভাবক সংগঠন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে সভাপতি এবং গোলাম রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করেন। পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটিও করে দেন তিনি।
-সুত্র বাংলা ট্রিবিউন

সর্বশেষ সংবাদ

জেএসসিতে নাদেরুজ্জামান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫জনের বৃত্তি লাভ

এনজিও জমানা বনাম কক্সবাজারবাসীর ভবিষ্যৎ

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন সেন্টমার্টিন পর্যটন শাখার কমিটি অনুমোদন

চট্টগ্রামে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছিনতাইকারী নিহত

রিক্সা চালিয়ে নিজের লেখাপড়ার খরচ যোগায় কলেজ ছাত্র আসকর আলী

নতুন এমপিও সুবিধা জুলাই থেকে

শাস্ত্রীয় সঙ্গীত সন্ধ্যা ‘চতুরঙ্গ’ আজ

একেএম মোজাম্মেল হকের মৃত্যুবার্ষিকীতে বাহারছড়া ছাত্র-যুব সমাজের ইফতার মাহফিল

“ডিঙি ফাউন্ডেশন” এর ইফতার পার্টি সম্পন্ন

কক্সবাজার পরিবেশ, মানবাধিকার ও উন্নয়ন ফোরামের সাধারণ সভা ও ইফতার মাহফিল 

লামায় পাহাড় থেকে পড়ে কাঠুরিয়া নিহত

সহনশীল রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করতে পারলেই কামাল হোছাইনের আত্মা শান্তি পাবে

রিক্সা চালিয়ে স্বপ্ন পূরণ করতে চায় আসকর আলী

ঢাকাস্থ কিশলয় প্রাক্তন ছাত্র সংসদ এর ইফতার মাহফিল

খুটাখালীতে কোস্ট ট্রাস্টের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠান

চান্দেরঘোনা হিলফুলফুজুল ইসলামী ছাত্র পরিষদের ইফতার মাহফিল 

উখিয়ার ইনানীতে দেশীয় অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী রুহুল আমিন গ্রেপ্তার

পোকখালীতে ভূমিদস্যুদের দখল থেকে ২০ একর সরকারি ভূমি উদ্ধার

হোয়ানকে কবরস্থান দখলমুক্ত করার দাবিতে বিশাল মানববন্ধন

বঙ্গোপসাগরে ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ, জেলেদের মাঝে হতাশা ও ক্ষোভ