সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
ট্রাভেল এজেন্টরাই বিমান যাত্রীদের প্রধান সহায়ক শক্তি বলে মন্তব্য করেছেন কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান।
তিনি বলেন, মানুষ কাজের প্রয়োজনে বিমানে যাতায়াত করে। যাত্রীদের টিকেট পাওয়ার ক্ষেত্রে দ্রুততম সময়ে সেবা দিয়ে থাকে ট্রাভেল এজেন্টগুলো। তারা না হলে বিমানের টিকিট পাওয়া, যে কোন দেশের ভিসা প্রসেসিং ইত্যাদি নিয়ে অনেক দুর্ভোগের শিকার হতো মানুষ। সেবাকে হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে ট্রাভেল এজেন্টগুলো।
মেয়র মুজিবুর রহমানের সাথে নবগঠিত কক্সবাজার ট্রাভেল এজেন্ট এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সৌজন্য সাক্ষাতে গেল তিনি এসব কথা বলেন।
জননেতা মজিবুর রহমান ট্রাভেল এজেন্টদের যে কোনো সমস্যা ও প্রয়োজনে পাশে থাকবেন বলে আশ্বস্ত করেন।
এ সময় তিনি ট্রাভেল এজেন্টগুলো নিয়ে সংগঠন প্রতিষ্ঠা করাকে সময়োপযোগী বলেও মন্তব্য করেছেন।
পৌর মেয়রের সাথে সাক্ষাৎকালে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের আহবায়ক ও আল আবরার ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলস এর স্বত্বাধিকারী আজিজুল হক, সদস্য সচিব ও ইউনিভার্সেল ট্যুরিজম এন্ড ট্রাভেলস এর স্বত্বাধিকারী এম. রেজাউল করিম, যুগ্মআহবায়ক ও এডভেঞ্চার ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলস এর স্বত্বাধিকারী রাশেদুল আমিন। সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন -ইনানিং এভিয়েশনের স্বত্বাধিকারী মোঃ ফয়সাল নুর, নিউ কক্সবাজার ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলস এর ম্যানেজিং পার্টনার সাইফুল ইসলাম, তাজ ট্রাভেল এজেন্সির স্বত্বাধিকারী মোঃ জানে আলম, কনকাচল কমিউনিকেশনের স্বত্বাধিকারী মোঃ রহমত আলি রনি।
শেষে পরস্পর বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •