লাইফ সাপোর্টে সুবীর নন্দী

সিবিএন ডেস্ক:
দেশবরেণ্য গায়ক সুবীর নন্দীকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা খারাপের দিকে গেলে তাকে রোববার (১৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১টার দিকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

সুবীর নন্দীর আত্মীয় অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রাবন্তী করের মা সংগীতশিল্পী তৃপ্তি কর এ বিষয়ে বলেন, ‘সুবীর নন্দীর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে জরুরিভাবে সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। সেখানে বিগ্রেডিয়ার তৌফিকের নির্দেশনায় বেশ ক’জন স্পেশালিস্ট শিল্পীর চিকিৎসার দায়িত্ব নেন।

উনার অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হবার পর বেশ কিছু ওষুধ দেয়া হয়। হাসপাতালে উনার মেয়ে, স্ত্রী ও আমি ছিলাম। রাতে ওষুধ খাওয়ানোর সময় উনি বিছানায় হেলান দিয়ে বসবেন বলে জানান। তাকে পিঠে বালিশ দিয়ে বসানোর চেষ্টা করি আমি। এসময় তার হার্ট অ্যাটাক হয়।

পরে চিকিৎসকরা দ্রুত তার জ্ঞান ফিরিয়ে এনে তাকে লাইফ সাপোর্টে নিয়ে যান। এখনো তিনি লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন। চিকিৎসকরা বলেছেন ৭২ ঘণ্টার আগে কোনো রিপোর্ট পাওয়া যাবে না। নন্দিত এই শিল্পীর জন্য সবার দোয়া চাই।’

এদিকে গতকাল রোববার (১৪ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে সুবীর নন্দীকে সিএমএইচে ভর্তি করার তথ্য নিশ্চিত করেন শিল্পীর মেয়ে ফাল্গুনী নন্দী। তিনি সবার কাছে তার বাবার জন্য দোয়া চেয়েছেন। সেইসঙ্গে হাসপাতালে দর্শনার্থীদের ভিড় না করতেও চিকিৎসকদের নির্দেশের কথা তিনি জানান।

এদিকে সুবীর নন্দীর আত্মীয় অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রাবন্তী করের মা তৃপ্তি কর বিস্তারিত জানিয়ে বলেন, ‘পরিবারসহ সিলেট থেকে ফিরছিলেন সুবীর নন্দী। উত্তরার কাছাকাছি আসতেই হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থা খুব খারাপ হয়ে যায়। বাধ্য হয়ে তাকে ট্রেন থেকে নামিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে করে সিএমএইচে নেয়া হয়।’

তিনি আরও জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরেই কিডনির অসুখে ভুগছেন সুবীর নন্দী। ঢাকার ল্যাবএইডে নিয়মিতই ডায়ালাইসিস করান। কিন্তু উত্তরা থেকে ল্যাবএইড যেতে অনেক সময় লাগবে, তাই আমিই দায়িত্ব নিয়ে সিএমএইচে উনাকে ভর্তি করিয়েছি। একজন বরেণ্য মানুষ, তার সুস্থতা আগে জরুরি।

নন্দিত কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী ৪০ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে গেয়েছেন আড়াই হাজারেরও বেশি গান। বেতার থেকে টেলিভিশন, তারপর চলচ্চিত্রেও উপহার দিয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় গান। ১৯৮১ সালে তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘সুবীর নন্দীর গান’ ডিসকো রেকর্ডিংয়ের ব্যানারে বাজারে আসে। তবে চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম গান করেন ১৯৭৬ সালে আব্দুস সামাদ পরিচালিত ‘সূর্যগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে।

চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে চারবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন তিনি। আর চলতি বছরে সংগীতে অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার সুবীর নন্দীকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করে।

সর্বশেষ সংবাদ

মেধু বড়ুয়ার পিতার মৃত্যুতে জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের শোক

জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় আটক হলো মাদক ব্যবসায়ী দম্পতি

জেলা ছাত্রদলের শোকজ নোটিশের জবাব দিলেন মোঃ সানাউল্লাহ সেলিম

মাঝ সমুদ্রে পড়ে গেলেন প্রিয়াঙ্কা!

১৫ দিনের ভারী বর্ষণে ৫০ হাজার রোহিঙ্গা ক্ষতিগ্রস্ত, পাহাড়ধস ঠেকাতে ‘সেফ প্লাস’ কর্মসূচি

হাসতে হাসতে ২৫ ছাত্রী অজ্ঞান!

প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১৬ টাকায় বিক্রি!

সাম্প্রতিক খুন-ধর্ষণের ঘটনা বিএনপি-জামায়াতের নিখুঁত ষড়যন্ত্র: আইনমন্ত্রী

নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম এ কালাম ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আব্দুস সাত্তারের স্মরণ সভা

গুজবে কান দেবেন না, কথিত ছেলেধরাকে আইনের হাতে দিন : জেলা পুলিশ

‘আর্ন্তজাতিক মানের ইকো ট্যুরিজমের জন্যই সোনাদিয়ায় বনায়ন করা হচ্ছে’

খরুলিয়ার মাদক সম্রাট নুরাইয়া অবশেষে পুলিশের জালে

ছেলে ধরা সন্দেহে পুলিশে খবর দিন-ওসি জাকির হোসেন ভূঁইয়া

শাহপরীর দ্বীপে ভাঙ্গা সড়ক দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন

কাজী শুভ’র ‘জড়াও মায়ায়’ গানের ভিউ দুই মিলিয়ন

রাঙ্গামাটিতে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবসের র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ইসলামাবাদ থেকে ভারতীয় লবনসহ ৬ টি ট্রাক জব্দ

দুই মাসের মধ্যে ফিটনেসহীন গাড়ির লাইসেন্স নবায়নের নির্দেশ

জনপ্রশাসন পদক পেলো কক্সবাজার জেলা প্রশাসন

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন