সংবাদদাতাঃ
কক্সবাজার সদরের বাংলা বাজার এলাকা থেকে কোহিনুর আক্তার (১৭) নামের পোশাক সেলাই কর্মীকে তুলে নিয়েছে বখাটেরা।
৭ এপ্রিল সকাল সাড়ে নটার দিকে ৫ থেকে ৬ জনের বখাটের একটি দল সিএনজিযোগে তাকে তুলে নিয়ে যায় বলে জানিয়েছে ভিকটিমের মা খুরশিদা বেগম।
এই ঘটনায় চারজনের বিরুদ্ধে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তিনি।
অভিযুক্তরা হলো- কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ৬ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম মুক্তারকুল এলাকার আনুইয়্যা, মোহাম্মদ আলম, সৈয়দ আলম ও নুরুল আলম।
অভিযোগে খুরশিদা বেগম উল্লেখ করেছেন, কোহিনুর আক্তার পেশায় একজন পোশাক সেলাই কর্মী। তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় অভিযুক্ত আনুইয়্যা। তাতে রাজি না হওয়ায় কর্মস্থলে যাওয়ার পথে মেয়েকে অভিযুক্তরা জোরপূর্বক তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। ঘটনার দুই দিনেও মেয়ের কোন হদিস না পেয়ে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন ভিকটিমের মা খুরশিদা বেগম।
তিনি আশঙ্কা করছেন, মেয়ে খুব সরল সহজ প্রকৃতির। সুযোগ বুঝে তাকে মানবপাচারকারী চক্রের নিকট বিক্রি করে দিতে পারে, অথবা শারীরিকভাবে ক্ষয়ক্ষতি করতে পারে। এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ খায়রুজ্জামান জানান, খুরশিদা বেগম একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তা একজন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এদিকে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুঠোফোনে খুরশিদা বেগম জানিয়েছেন, মেয়ের উদ্ধার দাবি জানিয়ে র‍্যাব, পুলিশসহ বিভিন্ন দপ্তরে তিনি অভিযোগ করেছেন। এই খবর পেয়ে বখাটেরা তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। তিনি জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •