নারীবাদীদের টি-শার্ট : ফেসবুকে অশালীন লেখা ও সামাজিক মূল্যবোধ

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী ||

একটি নারীবাদী ওয়েবসাইট থেকে গত শুক্রবার ৫ এপ্রিল রাতে টিশার্ট পরে মডেলিং করা যুবতীর ১৬ টি ছবি ফেসবুকে ছাড়া হয়। এ ছবিগুলো ফেসবুকে শেয়ার, কমেন্টে, লাইকে একেবারে ভাইরাল হয়ে যায়। টিশার্টের এছবি গুলোর লেখাসমুহ অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ বলেই অনেকের বিরূপ ও নেতিবাচক মন্তব্য সারাদিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসতে থাকে। টিশার্টের এসব ছবি ও ডায়লগ আমাদের সমাজব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে, রীতিমতো ভাবিয়ে তুলেছে। লেখাগুলো মার্জিতরুচির নাহলেও পাঠকের বুঝার সুবিধার্থে পাঠকের কাছে ক্ষমা চেয়ে মেয়েদের টিশার্টে লেখা ক’টি ডায়লগ হুবহু তুলে ধরা হলো-(১)’গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না।’ (২) ‘দুদু দেখে লাভ নেই, দুধে হাত দেওয়া নিষেধ’। (৩)’পাছা দেখে লাভ নেই-পাছা আমার জামাইর সম্পদ’। (৪)’দুধে হাত লাগাবেন না’। (৫)’পাঁছায় লিঙ্গ লাগাবেন না’- ইত্যাদি। টিশার্টের বুকে পিটে এসব লেখা সম্বলিত টিশার্ট গুলো পরে মডেলিং করা ছবি গুলোর কিছু উঠানো হয়েছে লোকাল শহর এলাকার স্বল্প দূরত্বের বাসের ভেতরে, কিছু উঠানো হয়েছে জনবহুল পাবলিক স্পেসে। ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে গরম করার পাশাপাশি গণমাধ্যমও ছবিগুলো আপলোডের ব্যাপারে প্রশ্ন উঠিয়ে মুখরোচক সংবাদ করেছে। অনেকে আবার ফেসবুককেও দোষারোপ করছেন।

এদিকে, মেয়েদের টিশার্টে লেখা সম্বলিত ছবিগুলো দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার বিকেল থেকে ছেলেরা নিজেদের চেহারা নাদেখিয়ে টিশার্ট পরে টিশার্টের পিঠে লিখে মেয়েদের ঐসব কুরুচিপূর্ণ লেখার পাল্টাজাবাব দিয়েছে। সেখানে ছেলেরা আরো নোংরা কথা লিখেছে-যেমন:(১)’যার তার গা ঘেঁষা ছেলেদের অভ্যাস নয়, আপনারা আগে ভাল হন। (২)’যেখানে গেলে গা ঘেষা লাগে, সেখানে যাবেন না’। (৩)’লিঙ্গের দিকে তাকাবেন না, লিঙ্গ বউ এর সম্পদ’। (৪)’নারীবাদীরা সরে দাঁড়ান, আপনাদের স্পর্শ করার রুচি নেই’। (৫)’ওই ছেরি তুই দূরে দাঁড়া, গন্ধ বেরুচ্ছে তোর গা থেকে’-ইত্যাদি। এসব লেখা-পাল্টালেখা নিয়ে সবার একটি প্রশ্ন ‘কেন অযাচিত পাল্টাপাল্টি কুরুচিপূর্ণ কথাবার্তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাড়া হচ্ছে।’ এসবের মাধ্যমে আমাদের সমাজের স্বাভাবিক কমন সভ্যতা, রুচিবোধ কি বিকৃত হচ্ছেনা? পরস্পর লজ্জা শরম কি উঠে যাচ্ছেনা? সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় হচ্ছেনা? শালিনতা কি উঠে যাচ্ছেনা? এসব কি দেখার কেউ নেই? সবার বক্তব্য হলো এভাবে হতে থাকলে এটা একসময় সবার গাসোয়া হয়ে যাবে। এ অবস্থা দেখে অনেকে যারা ছবি গুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করেছেন-তাদের ধিক্কার জানিয়েছেন, ঘৃণা প্রকাশ করেছেন, ক্ষোভ দেখিয়েছেন। তারা বলছেন-ফ্রি সেক্সের দেশ ও যৌনতানির্ভর রাজস্ব আয়ের দেশগুলোর মতো এসব নেতিবাচক কর্মকান্ড পাশ্চাত্য সভ্যতাকেও একসময় হার মানাবে। তাই এভাবে আর হতে দেয়া যায়না, এগুলো অবশ্যই বন্ধ করতে হবে, প্রচলিত আইনে সম্ভব নাহলে, প্রয়োজনে নতুন আইন তৈরী করে এসব বিষয় আইনের আওতায় আনতে হবে।

– (সিবিএন মুক্তমত বিভাগ )

(নোট: সম্মানিত পাঠকেরা কুরুচিপূর্ণ ডায়লগ সমুহের মতো ছবি দেখে দেখে নিউজটা যাতে পুরোপুরি বুঝতে সক্ষম হন, সেজন্য ছবিগুলো নিউজের সাথে দেয়া হলো। লেখক : এডভোকেট, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট, ঢাকা।)

সর্বশেষ সংবাদ

‘ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরে বাধা দিচ্ছেন, প্রাণহানির দায় আপনাদের’

স্থানীয় সরকারের সিনিয়র সচিব গোলাম ফারুক দু’দিনের সফরে কক্সবাজারে

এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফেনি’

কুতুবদিয়ায় ২ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

শিক্ষকদের ওপর বেশি কর্তৃত্ব ফলান অশিক্ষিত ব্যবস্থাপনা কমিটি: শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল

ভোটের মাধ্যমে ‘পুনর্গঠন’ চায় তৃণমূল বিএনপি

লামায় কমিউনিটি ক্লিনিক সংস্কার কাজে অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ

নাইক্ষ্যংছড়ি কলেজের প্রভাষক আবদুস সাত্তার আর নেই : আসরের পর জানাজা

জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালনে কক্সবাজারে ব্যাপক প্রস্তুতি

নির্বাচন কমিশন সচিবের সংগে মতবিনিময় করলেন ঢাকাস্থ রামু সমিতি

বঙ্গবন্ধু বাংলার সাধারণ মানুষের ভালোবাসার কথা ভাবতেন : চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার

চট্টগ্রামে জব্বারের বলীখেলায় কুমিল্লার শাহজালাল চ্যাম্পিয়ন

বাংলাদেশ কমিউনিটি মেটস প্রবাসীদের ১লা বৈশাখ উদযাপন

চকরিয়ায় পাওনা টাকা দাবির জেরে বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর, আহত ৬

ইউজিপি-থ্রি প্রকল্প পরিচালকের কলাতলী – মেরিন ড্রাইভ চলমান কাজ পরিদর্শন

দারুল আরক্বম তাহফীযুল কুরআন মাদরাসার সবিনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন

আলোকিত উখিয়ায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

আদালতের আদেশনামা গোপন করে শপথ নিয়েছে জমিরী- রফিক উদ্দীন

জেরায় বিমর্ষ সোনাগাজী থানার সেই ওসি মোয়াজ্জেম

পেকুয়ায় শরতঘোনা পয়েন্টে বেড়িবাঁধ বিলীন