শাহেদুল ইসলাম (মনির)

পৃথিবীতে সন্তানদের একমাত্র ভালবাসা নাম তার মা-বাবা। যাদের মা-বাবা নেই তাদের ভালবাসা দেওয়ার মত কেউ নাই। মা-বাবা ছাড়া পৃথিবীতে থাকিও না থাকার মত। আর পৃথিবীতে ছেলে-মেয়েদের জন্য সবচেয়ে মধুর শব্দটি হচ্ছে মা। যে শব্দের ব্যাখ্যা দিয়ে শেষ করা যাবে না। একজন সন্তানের জন্য মায়ের ভূমিকা অতুলনীয়।

কিছুই বলার কোন শক্তি নেই আর বুঝার কোন পথ নেই শুধুই কান্নাই যার ভাষা এমন একটি শিশুকে হাজারো বাধা বিপত্তির পর্বতমালা পেরিয়ে বহু ত্যাগ তিতিক্ষার সাগর পাড়ি দিয়ে আঁচলে বাঁধা সুখের পরশে স্বযন্তে লালন-পালন করে মানুষ হিসেবে গড়ে তুলা সেই মমতাময়ী নারীই হলেন মা। মা-বাবা ছাড়া একটি সন্তান সুস্থ সুন্দর নিখুঁতভাবে গড়ে উঠতে পারে না।
অনাগত সন্তানকে পৃথিবীর আলো দেখানোর স্বপ্নে বিভোর প্রতিটি মা-ই জানেন যে, জন্মদানের মুহূর্তে তার নিজের জীবন প্রদীপটুুুুুুুকু নিভে যাবার সম্ভাবনাও শতভাগ। তবুও কি তার স্বপ্ন দেখা থেমে থাকে ! সন্তানের মুখখানা দেখে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করার মাঝেও যেন সুখ ! অতঃপর জীবনের অন্তিম মুহূর্ত পর্যন্ত মায়েদের ত্যাগের কথা আর নাই বলি।
নীরবে, নিঃশব্দে, নিভৃতে একজন বাবা দিনের অধিকাংশ সময় ব্যয় করেন আয়ের পিছনে ছুটে। সন্তানের মুখে ভালটা তুলে দিবে বলে, পছন্দের জামাটা কিনে দিবে বলে, কিংবা লেখাপড়ার সীমাহীন খরচ মেটাবে বলে, । নিজের সুখটুকু বিসর্জন দিয়ে, নানান কায়দায় অর্থ সাশ্রয় করে সন্তানের জন্যে সুখ কেনেন বাবা’রা । “বিলিভ ইট অর নটথথ এটাই শাশ্বত সত্য,” সন্তানের প্রতি বাবা-মা’র ভালোবাসাই পৃথিবীর নিঃস্বার্থ ভালোবাসা”
যেমন- ভাই একাধিক হতে পারে। বোন একাধিক হতে পারে। সন্তান একাধিক হতে বাধা নেই। চাচা-ফুফু একাধিক হতেও কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু মা-বাবা একবার যদি দুনিয়া ছেড়ে চলে যান তাহলে তার বিকল্প কোনোভাবেই কল্পনা করা যায় না।
সন্তানের সুখের জন্য মা-বাবা নিজেদের তিলে তিলে ক্ষয় করেন। সুখ-শান্তি বিসর্জন দেন, যা প্রথমে না বুঝলেও নিজেরা যখন মা-বাবা হয় তখন প্রত্যেকে ঠিকই বুঝতে পারে। মা-বাবার খেদমত করলে নিশ্চিতভাবে বেহেশত লাভ হয়।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •